চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গার দর্শনা প্রেসক্লাবকে কলঙ্কমুক্ত করতে সাংবাদিকদের জরুরী বৈঠক সেক্রেটারীর নারী কেলেঙ্কারীর ঘটনায় প্রেসক্লাবের কমিটি বর্জন নতুন কমিটি গঠন : নারুল আলম বাকু সভাপতি আলমগীর সেক্রেটারী

সমীকরণ প্রতিবেদন
সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৬ ১:০৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

c_ দর্শনা অফিস: সাংবাদিকদের বলা হয় জাতির বিবেক। একজন নির্ভিক, সৎ ও দায়িত্ববান সাংবাদিকের লেখনিতেই ফুটে ওঠে ব্যক্তি, সমাজ, দেশ তথা জাতির আসল রূপ। একটি জাতির উন্নতিতে সাংবাদিকদের গুরুত্ব অপরিসীম। কিন্তু একটি কথা অপ্রিয় হলেও সত্য বর্তমানে সাংবাদিকতাকে পুঁজি করে এক শ্রেণির অশিক্ষিত ও দুর্নীতিবাজ অনৈতিক সুবিধার বিনিময়ে নানা অপকর্মের সাথে যুক্ত হয়ে গোটা সাংবাদিক সমাজকে কলুষিত করে তুলছে। সাংবাদিক নামের কলঙ্ক এমনই একজন দর্শনা প্রেসক্লাবের কথিত সেক্রেটারী চুয়াডাঙ্গা থেকে প্রকাশিত দৈনিক মাথাভাঙ্গার দর্শনা ব্যুরো প্রধান হারুন রাজু গত ঈদুল আজহার আগের দিন দর্শনা পৌর এলাকার বাসস্ট্যান্ডপাড়ায় এক প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে অনৈতিক কার্যকলাপে লিপ্ত থাকা অবস্থায় স্থানীয় যুবকদের হাতে ধরা পড়ে। এসময় ক্ষুব্ধ জনতা উত্তম মধ্যম দেয়া শুরু করলে খবর পেয়ে কয়েকজন সাংবাদিক ও দর্শনা তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ শফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থল থেকে রাজুকে ddddddউদ্ধার করে। পরে লম্পট রাজুর নানা অপকর্মের দোষর দর্শনা প্রেসক্লাবের কতিপয় দুর্নীতিবাজ সাংবাদিক  লম্পট রাজুর পক্ষ নিয়ে বিষয়টি অন্য খাতে প্রবাহিত করতে নানা ফন্দিফিকির শুরু করে। এ বিষয়টির সুষ্ঠু সমাধানকল্পে প্রেসক্লাবের অন্যান্য সাংবাদিকেরা কমিটির সভাপতিকে একাধিকবার অবহিত করলেও তাদের কথায় কর্ণপাত না করে তাদের মত নানা কর্মকান্ড অব্যাহত রেখেছে। ফলে সুস্থ্যধারার সাংবাদিক মহলে সৃষ্টি হয় চরম ক্ষোভের। ইতোমধ্যে দর্শনা প্রেসক্লাব বা পত্রিকার পক্ষ থেকে এ অপকর্মের জন্য লম্পট রাজুর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় জনসাধারন ক্ষোভে ফেটে পড়ে। এরই ফলশ্র“তিতে এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনায় লম্পট রাজুর শাস্তির দাবীতে স্থানীয় জনতা বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন ও  গণস্বাক্ষরসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করে। যা দর্শনাসহ এলাকার পুরো সাংবাদিকমহল সমাজের কাছে চরমভাবে হেয় প্রতিপন্ন হয়েছে। সেইসাথে কলঙ্কিত হয়েছে দর্শনা প্রেসক্লাবের মত একটি পবিত্র সংগঠন। দর্শনাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে প্রকৃত সাংবাদিকদের সম্মান রক্ষা ও দর্শনা প্রেসক্লাবকে কলঙ্কমুক্ত করার লক্ষ্যে গতকাল শনিবার বিকালে দর্শনা প্রেসক্লাবে এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আওয়াল হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে সেক্রেটারী রাজুর নারী কেলেঙ্কারীর ঘটনায় সাংবাদিক সমাজ ও প্রেসক্লাবের মান চরমভাবে ক্ষুন্ন হওয়ায় উপস্থিত সাংবাদিকদের সর্ব সম্মতিক্রমে প্রেসক্লাবের কমিটি বর্জন করা হয়। সেইসাথে গঠন করা হয় প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি। এ কমিটিতে প্রবীণ সাংবাদিক নুরুল আলম বাকুকে সভাপতি ও এফএ আলমগীরকে সেক্রেটারী, সহ-সভাপতি আব্দুল জলিল, সহ সেক্রেটারী রাজিব মল্লিক, সাংগাঠনিক সম্পাদক মাহমুদ হাসান রনি, কোষাধ্যক্ষ জাহিদুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক সাব্বির আলীম, তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক মেহেদী হাসান এবং আওয়াল হোসেন, এসএম ওসমান, কামরুজ্জামান যুদ্ধ কার্যনির্বাহী সদস্যর একটি কমিটি গঠন করা হয়। হারুন রাজুকে দর্শনা প্রেসক্লাব থেকে বহিস্কার না হওয়া পর্যন্ত এ নবনির্বাচিত কমিটি দর্শনা প্রেসক্লাবের সকল দায়িত্ব পালন করবে বলে উপস্থিত সকলেই জানান।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।