চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ২৯ নভেম্বর ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

 চুয়াডাঙ্গার জিপু চৌধুরীসহ ২৫ পৌরসভায় বাদ পড়লেন ৯ মেয়র

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ২৯, ২০২০ ১০:৩৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

প্রথম ধাপের পৌর নির্বাচন : আ.লীগের ২৫ প্রার্থী চূড়ান্ত গত নির্বাচনে বিদ্রোহীদের মনোনয়ন দেওয়া হয়নি
সমীকরণ প্রতিবেদন:
অতীতে স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন নির্বাচনে নৌকার বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থীদের আগামী দিনে দলীয় মনোনয়ন দেবে না আওয়ামী লীগ। দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী নেতা যতই জনপ্রিয় হোন না কেন, পরবর্তী সময়ে তিনি আর নৌকা প্রতীক পাবেন না। দলের মধ্যে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠায় এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে আওয়ামী লীগ। গতকাল শনিবার আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের এক সভায় এমন সিদ্ধান্ত হয়। প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। এদিনের সভায় ২৫ পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। এর মধ্যে নয়জন বর্তমান মেয়র এবার দলীয় মনোনয়নবঞ্চিত হয়েছেন। তাদের মধ্যে দুইজন গত নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে বিজয়ী হয়েছিলেন। এবারও তারা দলের মনোনয়ন পাননি। এ ৯ পৌরসভায় নতুন মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। তবে ১৪ জন বর্তমান মেয়রকে আবারও দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। বাকি দুটি পৌরসভার মধ্যে একটিতে বর্তমানে বিএনপির আর অন্যটিতে স্বতন্ত্র মেয়র। এ দুটিতেও আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাদের প্রার্থী করা হয়েছে।
বাদ পড়েছেন যারা:
রংপুরের বদরগঞ্জে বর্তমান মেয়র পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি উত্তম কুমার সাহা। এবার তিনি দলীয় মনোনয়ন থেকে বাদ পড়েছেন। তার পরিবর্তে এবার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আহসানুল হক চৌধুরীকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। কুড়িগ্রাম পৌরসভার বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগের সাবেক পৌর শাখার সাধারণ সম্পাদক আবদুল জলিল। তার পরিবর্তে এবার আওয়ামী লীগ মনোনয়ন দিয়েছে পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. কাজিউল ইসলামকে। পাবনার চাটমোহর পৌরসভায় গত নির্বাচনের বিদ্রোহী প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র মির্জা রেজাউল করিম দুলালকে এবারও দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়নি। দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন সাখো। সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে বর্তমান মেয়র হালিমুল হক নিরুর পরিবর্তে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়া হয়েছে আওয়ামী লীগ নেতা মনির আক্তার খান তরু লোদীকে। খুলনার দাকোপে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়া হয়েছে উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আল মাছুম মুর্শেদকে। বাদ পড়েছেন বর্তমান মেয়র তারিকুল ইসলাম তারিক। চুয়াডাঙ্গায়ও বাদ পড়েছেন বর্তমান মেয়র জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক ওবায়দুর রহমান চৌধুরী। সেখানে এবার মনোনয়ন পেয়েছেন স্থানীয় সংসদ সদস্যের ভাই রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দার। মানিকগঞ্জ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন বর্তমান মেয়র জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গাজী কামরুল হুদা সেলিম। এবারও তিনি দলীয় মনোনয়ন পাননি। মনোনয়ন দেয়া হয়েছে জেলা আওয়ামী লীগের ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. রমজান আলীকে। গত নির্বাচনেও দল থেকে তাকেই মনোনয়ন দেয়া হয়েছিল। সুনামগঞ্জের দীরাইয়ে বাদ পড়েছেন বর্তমান মেয়র উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ মিয়া। এই পৌরসভায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা বিশ্বজিৎ রায়কে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে বর্তমান মেয়র পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ছালেক মিয়া বাদ পড়েছেন। তার জায়গায় এবার মনোনয়ন দেয়া হয়েছে পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও প্যানেল মেয়র মো. মাসুদুউজ্জামান মাসুককে।
বর্তমান মেয়র যারা ফের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন:
ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে মো. কশিরুল আলম, রাজশাহী জেলার পুঠিয়ায় মো. রবিউল ইসলাম, কাটাখালী মো. আব্বাস আলী, খুলনা জেলার চালনায় সনত কুমার বিশ্বাস, বরগুনার বেতাগীতে এবিএম গোলাম কবির, পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় আ. বারেক মোল্লা, বরিশালের উজিরপুরে মো. গিয়াস উদ্দিন বেপারী ও বাকেরগঞ্জে মো. লোকমান হোসেন ডাকুয়া, ঢাকার ধামরাইয়ে গোলাম কবির, গাজীপুরের শ্রীপুরে মো. আনিছুর রহমান, ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে এসএম ইকবাল হোসেন (সুমন), নেত্রকোনা মদনে মো. আবদুল হান্নান তালুকদার, মৌলভীবাজারের বড়লেখায় আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী এবং চট্টগ্রাম জেলার সীতাকুণ্ডে বদিউল আলমকে আবারও দলীয় মনোনয়ন দিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। এছাড়া পঞ্চগড় জেলার পঞ্চগড় সদরে জাকিয়া খাতুনকে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। এই পৌরসভায় বর্তমান মেয়র বিএনপির মো. তৌহিদুল ইসলাম। অন্যদিকে দিনাজপুরের ফুলবাড়ী পৌরসভার বর্তমান মেয়র (সতন্ত্র) মুর্তুজা সরকার মানিক। এই আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়েছে মো. খাজা মঈন উদ্দিনকে। এদিনের সভায় আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু ও তোফায়েল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, কাজী জাফর উল্লাহ, লে. কর্নেল (অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান, আবদুর রহমান এবং প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ।

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।