চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ৪ মার্চ ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গায় বন বিড়াল হত্যার ঘটনায় বিভাগীয় টিমের ঘটনাস্থল পরিদর্শন

অভিযুক্তদের অস্বীকার, সদর থানায় জিডি
সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
মার্চ ৪, ২০২২ ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সোহেল রানা ডালিম:

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার দীননাথপুরে পাঁচটি বন বিড়াল পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ খুলনার একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। বিষয়টি নিয়ে প্রত্যাক্ষ সাক্ষী না থাকায় সদর থানায় একটি জিডি করেন ওই টিমের এক সদস্য। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে খুলনা থেকে আসা ওই টিম।

জানা যায়, গত বুধবার বিকেলে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার দীননাথপুর গ্রামের মাদ্রাসাপাড়ায় এক প্রবাসীর বাড়ির ভেতর ঘরে থাকা পাঁচটি বন বিড়াল পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ ওঠে প্রবাসীর স্ত্রীসহ প্রতিবেশী দুজনের বিরুদ্ধে। ওই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ খুলনা-এর বন্যপ্রাণী পরিদর্শক আহমেদ রাজু’র নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ঘটনাস্থল থেকে প্রত্যাক্ষদর্শী কোনো সাক্ষী না পাওয়ায় বিষয়টি তদন্তের জন্য সদর থানায় একটি জিডি করেন তাঁরা।

খুলনা টিমের ঘটনাস্থল পরিদর্শনের সত্যতা নিশ্চিত করে চুয়াডাঙ্গা জেলা বন কর্মকর্তা জাকির হোসেন বলেন, বন বিড়াল হত্যার ঘটনায় তরিকতের বিষয়ে উপযুক্ত আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্যই সদর থানায় একটি জিডি করা হয়েছে। সদর থানার পুলিশ তদন্তপূর্বক জড়িতদের বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে।

প্রসঙ্গত, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার দীননাথপুর মাদ্রাসাপাড়া এলাকার প্রবাসী বিল্লাল হোসেনের খড়ির ঘরে চারটি বাচ্চার জন্ম দিয়ে সেখানেই ছিল মা বন বিড়ালটি। গত বুধবার বিকেলে বন বিড়ালগুলো কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ ওঠে প্রবাসীর স্ত্রীসহ প্রতিবেশী দুজনের ওপর। বিষয়টি জানাজানি হলে পরিবেশ নিয়ে কাজ করা স্থানীয় সংগঠনগুলোসহ সাধারণ মানুষ এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান। একই সাথে দাবি ওঠে জড়িতদের বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার। এ ঘটনায় সংবাদ প্রকাশ হলে খুলনা থেকে আসা একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে তাঁরা সদর থানায় একটি জিডি করেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।