চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ৫ এপ্রিল ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চুয়াডাঙ্গায় পবিত্র রমজান উপলক্ষে সদর থানা পুলিশের সৌজন্যে ফ্রি ইফতার এন্ড সাহরি শপের উদ্বোধন

ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে- এসপি জাহিদ
সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
এপ্রিল ৫, ২০২২ ৯:২৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

উদ্যোগ একজন নেয়, সফল করে আপনাদের-আমাদের মতো মানুষ- সাহিদুজ্জামান টরিক

নিজস্ব প্রতিবেদক:

পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গায় নিম্ন আয়ের মানুষ ও হাসপাতালের রোগী এবং স্বজনদের জন্য ব্যতিক্রমী এক দোকান চালু করেছে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ। নামে দোকান হলেও রমজান মাসব্যাপী এই দোকান থেকে ইফতার ও সাহরি নেওয়ার জন্য লাগবে না একটি টাকাও। সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এই দোকান থেকে নিম্ন আয়ের মানুষ ও হাসপাতালের রোগী এবং স্বজনেরা ইফতার ও সাহরি পাবে। চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মহসীন পিপিএম-এর পরিকল্পনায় ইফতার ও সাহরির এ দোকানের নাম দেয়া হয়েছে ‘ফ্রি ইফতার অ্যান্ড সাহরি শপ’। গতকাল সোমবার বিকেল চারটায় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল চত্বরে এ ভিন্নধর্মী শপের উদ্বোধন করা হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফ্রি ইফতার এন্ড সাহরি শপের উদ্বোধন করেন চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম। এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘মানুষ যখন বিপদে পড়ে, তখন পুলিশ জনগণের প্রকৃত বন্ধু। মানুষ বিপদে পড়লে পুলিশকে ডাকে। আসলে পুলিশ মানুষের বিপদের বন্ধু। এখন পুলিশ অনেক ভালো কাজ করে। এখানে আয়োজনটি কেন, সেটি সদর থানার অফিসার ইনচার্জকে জিজ্ঞাসা করেছিলাম। তার ব্যাখাটা যুক্তিযুক্ত, আসলে সদর হাসপাতালে অপেক্ষাকৃত গরিব মানুষ বেশি চিকিৎসা নিতে আসে। রোগীর সাথে দুজন-তিনজন থাকে। তারা আসলে ইফতারির সময় ওষুধ কিনতে দৌঁড়াবে নাকি ইফতারি কিনতে। দুস্থ রোগী, অসহায় অথবা যে কেউ আসুক, এখান থেকে তারা ফ্রি ইফতারি ও সাহরি পাবে। এখুনি শুনেছি, অনেক মানুষ এই উদ্যোগের পাশে দাঁড়াতে চেয়েছে। এটিই হলো মানবতা। আমাদের ভিতরটাকে জাগ্রত করতে হবে। এটা যেন চালু থাকে। আসলেই এটি একটি মহৎ উদ্যোগ। এ উদ্যোগের জন্য সদরের অফিসার ইনচার্জকে ধন্যবাদ জানায়। নিরাপত্তায় আমাদের মূল কাজ। সেই কাজের পাশাপাশি আমাদের এটি করার পেছনের মূল কারণ হচ্ছে, মানুষ অনুপ্রেরণা পেয়ে যেন পাশে দাড়াই। যাঁদের মধ্যে মনুষ্যত্ব আছে, সকলে যেন ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে মানুষের পাশে দাঁড়াই।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, চুয়াডাঙ্গার কৃতী সন্তান, সিঙ্গাপুরস্থ বাংলাদেশ বিজনেস অব চেম্বার (বিডিচ্যাম)-এর সাবেক প্রেসিডেন্ট, সাহিদ গ্রæপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব সাহিদুজ্জামান টরিক। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, প্রথমেই ধন্যবাদ জানায়, ‘হাসপাতালের সামনে এতো সুন্দর একটি আয়োজন করে ইফতার ও সাহরি দেয়ার জন্য। আসলে ভালো কাজ করার জন্য খুব বেশি টাকা পয়সার দরকার হয় না। ভালো একটা মন থাকা চাই। শুধু একটা কথা বলবো, আপনার ভিতরটাকে একটু জাগ্রত করুন। কেউ এগিয়ে আসবে তা নয়, আপনি নিজে আগে এগিয়ে আসুন। কিছু না পারি, একটা খেজুর এবং এক বোতল পানি যদি কোনো মানুষের হাতে তুলে দিতে পারি, এটার জন্যও আল্লাহ আরও ৭০ গুণ বরকত দিয়ে দিবেন। অন্তত আমরা এইটুকু চিন্তা করি, আমরা কিছু করতে চাই কিনা। উদ্যোগ একজন নেয়, সেটা সফল করে আপনাদের আমাদের মতো মানুষ। সবাই সহযোগিতা করবেন। আপনারা যদি সেই চিন্তাটাকে মানুষের মধ্যে নিয়ে আসেন, তাহলে আপনারাও এ ধরনের উদ্যোগ নিতে পারবেন। দুনিয়াতে কেউ উদ্যোগী হয়ে জন্ম নেয় না, আমাদের মতো, আপনাদের মতো মানুষই এ ধরনের কাজে চলে আসে। আমি সবাইকে অনুরোধ করবো, এ উদ্যোগে আপনারা থাকবেন। ইহকালে যেমন বরকত পাবেন, পরকালেও বরকত পাবেন।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহম্মদ মহসীনের পরিচালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন, চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আনিসুজ্জামান, চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. এএসএম ফাতেহ আকরাম, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি চুয়াডাঙ্গা জেলা ইউনিটের সভাপতি ও দৈনিক সময়ের সমীকরণ এর প্রধান সম্পাদক নাজমুল হক স্বপন, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাফিজুর রহমান মাফি প্রমুখ।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।