চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ৭ ডিসেম্বর ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চাহিদা মেটাতে জীবননগরে ৫০ হেক্টর জমিতে সরিষার আবাদ

নাগালের বাইরে সয়াবিন তেলের দাম
সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
ডিসেম্বর ৭, ২০২২ ৯:১৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

মিঠুন মাহমুদ: জীবননগরে সরিষার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখছেন চাষীরা। বর্তমান বাজারে ভোজ্যতেল সয়াবিনের দাম বাড়ার সাথে সাথে নিজেদের পরিবারের তেলের চাহিদা মেটাতে সরিষা চাষে আগ্রহ দেখা দিয়েছে কৃষকদের মাঝে। নিজেদের চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি সরিষা চাষ করে বাড়তি আয় হওয়ায় দিন-দিন সরিষা চাষে এ অঞ্চলের কৃষকদের আগ্রহ বাড়ছে। এছাড়া সরিষার বাজার দর ভালো হওয়ায় সরিষা চাষের দিকে ঝুঁকছেন তাঁরা। জীবননগর উপজেলার বিভন্ন গ্রামে চোঁখে পড়ে সরিষার খেত। যে দিকে চোখ যায়, সে দিকেই শুধু সরিষার ফুলের সমারোহ। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবার ফলন ভালো হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

জানা গেছে, জীবননগর উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার মাঠজুড়ে এ বছর সরিষা আবাদ হয়েছে চোখে পড়ার মতো। যা গতবারের চেয়ে দ্বিগুন। জীবননগর উপজেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি সরিষা আবাদ হয়েছে সীমান্ত ইউনিয়নে। এ বছরে সীমান্ত ইউনিয়নে ৫০ হেক্টর জমিতে সরিষার আবাদ হয়েছে। যা গত বছরের তুলনায় দ্বিগুন। চাষিরা জানান, উঁচু জমি সরিষা চাষের জন্য উপযুক্ত। প্রথমে হালকাভাবে চাষ করে সরিষার বীজ বপন করতে হয়। পরে দু-একবার কিছু ওষুধ ও কীটনাশক দিলেই সহজে ফলন ভালো হয়। তুলনামূলক কম পরিশ্রমে বেশি লাভ হওয়ায় দিন দিন সরিষা চাষে আগ্রহ বাড়ছে এ অঞ্চলের কৃষকদের মধ্যে।

হরিহরনগর গ্রামের সরিষা চাষী মাহাবুল হোসেন বলেন, কয়েক বছর আগেও তাঁদের জমি পরিত্যক্ত থাকত। কিন্তু বর্তমানে সয়াবিন তেলের দাম বৃদ্ধি হওয়ায় এবং উপজেলা কৃষি বিভাগের পরামর্শে তাঁরা এখন জমিতে সরিষা চাষ করছেন। ফলন দেখে মনে হচ্ছে, গতবারের চেয়ে উৎপাদন আরও বেশি হবে। সে কারণে এবার বেশি লাভের আশা করছি।

জীবননগর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. ইয়াছিন আলী বলেন, ‘প্রণোদনার আওতায় আমরা কৃষকদের বীজ ও সার সরবরাহ করেছি। পাশাপাশি তাঁদের নিয়মিত পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি। এতে সরিষার আবাদ দিন দিন এই উপজেলায় জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। অনুকূল আবহাওয়া ও নিবিড় পরিচর্যার কারণে এ অঞ্চলের কৃষকেরা এবার সরিষার ভালো ফলন পাবেন বলে আশা করছি। বাজারে সরিষার দাম বেশি থাকায় কৃষকেরা সরিষা চাষে ঝুঁকে পড়ছে।’

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।