চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ৯ জানুয়ারি ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

চাকুলিয়া সীমান্তে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠক গরু ব্যবসায়ী বকুলকে পিটিয়ে হত্যা বিএসএফের অস্বীকার

সমীকরণ প্রতিবেদন
জানুয়ারি ৯, ২০১৭ ১:৩৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

khdsকার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি: দামুড়হুদা উপজেলার চাকুলিয়া সীমান্তে গরু ব্যবসায়ী বকুলকে বিএসএফ পিটিয়ে হত্যা করার প্রতিবাদে দু’দেশের সীমান্তরক্ষীদের মধ্যে কোম্পানী কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় সীমান্তে ৮৬নং মেইন পিলারের কাছে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে ভারতের মালুয়াপাড়া বিএসএফ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার ইনসপেক্টর এস কে মিনহা গরু ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা করার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। জানা যায়, গত শনিবার ভোরে উপজেলার ফুলবাড়ি গ্রামের মৃত সদর উদ্দীনের ছেলে বকুলসহ ৪-৫ জন ভারত থেকে গরু ক্রয় করে চাকুলিয়া সীমান্তের ৮৮নং মেইন পিলারের কাছ দিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের সময় ভারতের মালুয়াপাড়ার বিএসএফ ক্যাম্পের টহলরত বিএসএফ সদস্যরা তাদেরকে ধাওয়া করে বকুলকে ধরে ফেলে অন্যরা পালিয়ে যায়। এরপর বকুলকে কুপিয়েও পিটিয়ে আহত করে কাটা তারের বেড়ার পাশে ফেলে রেখে চলে যায়। সহযোগীরা বকুলকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। এই ঘটনার পর দুপুরে মুন্সিপুর বিজিপি ক্যাম্পের কোম্পানী কমা-ার সুবেদার জাহাঙ্গীন হোসেন হত্যাকা-ের ঘটনার কড়া প্রতিবাদ ও তীব্র নিন্দা জানিয়ে বিএসএফের কাছে চিঠি দেই। এর পরিপ্রেক্ষিতে রোববার সকালে চাকুলিয়া সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ ঘন্টাব্যাপি পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হলে ও গরু ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা করার বিষয়ে অস্বীকার করে বিএসএফ। এসময় বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন মুন্সিপুর বিজিবি ক্যাম্পের কোম্পনী কমান্ডার সুবেদার জাহাঙ্গীরসহ ১০জন এবং ভারতের পক্ষে মালুয়াপাড়ার বিএসএফ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার এসকে মিনহাসহ ১২ জন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।