চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ১ আগস্ট ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গড়াইটুপিতে জমিতে বিষ প্রয়োগ করা নিয়ে দ্বন্দ্বে দুইপক্ষের সংঘর্ষ, চারজন আহত

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
আগস্ট ১, ২০২২ ১১:২১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গায় জমিতে ঘাসমারা বিষ প্রয়োগ করাকে কেন্দ্র করে দুইপক্ষের সংঘর্ষে উভয়পক্ষের চারজন জখম হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল রোববার রাত আটটার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার গড়াইটুপি ইউনিয়নের বাটিকাডাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে পরিবারের সদস্যরা জখম চারজনকেই উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। আহতরা হলেন- বাটিকাডাঙ্গা গ্রামের মাঝেরপাড়ার মৃত তাহাজুদ বিশ্বাসের ছেলে আব্দুল ওদুদ মাস্টার (৬৫), তার ছেলে বুলবুল আহমেদ (৩২), একই এলাকার মৃত সদর আলীর ছেলে রবিউল ইসলাম (৪৫) ও তার ছেলে পারভেজ (২৬)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আব্দুল ওদুদ মাস্টারের জমির পাশেই রবিউল ইসলাম তার জমিতে পাকা বাড়ি বানিয়েছে। কয়েকদিন পূর্বে বাড়ির পাশের জমিতে ঘাস বড় হওয়ায় রবিউল ইসলামের ছোট ভাই সাপের ভয়ে ওদুদ মাস্টারের জমিসহ রাস্তার পাশে ঘাসমারা বিষ প্রয়োগ করে। এ নিয়ে গতকাল রাত আটটার দিকে আব্দুল ওদুদ মাস্টার ও রবিউল ইসলামের মধ্যে বাগবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। এসময় উভয় পক্ষের লোকজন সেখানে এলে তারা লাঠি ও শাবল জড়িয়ে একে অপরকে আঘাত করে। এতে উভয়পক্ষের চারজন গুরুতর জখম হয়। পরে পরিবারের সদস্যরা আহতদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়। এসময় জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতদের চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি রাখেন।

একই গ্রামের ডালিম হোসেন নামের এক ব্যক্তি বলেন, গত বুধবার রবিউল ইসলামের ভাই আক্তার হোসেন তার বাড়ির চারপাশে ও রাস্তার ধারে ঘাসমারা জন্য বিষ প্রয়োগ করে। কিন্তু এসময় সে আব্দুল ওদুদ মাস্টারের জমির কিছু অংশেও বিষ প্রয়োগ করে। এনিয়ে আজ (গতকাল) দুই পরিবারে মধ্যে বাগবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে সংঘর্ষ বাঁধলে তারা শাবল দিয়ে একে অপরকে আঘাত করে। পরে পরিবারের সদস্যদের সহায়তায় তাদেরকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. আব্দুল কাদের বলেন, পরপর চারজনকে জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। তাদের প্রত্যেকের মাথায় গুরুতর জখমের চিহ্ন পাওয়া গেছে। জখম গুরুতর হওয়ায় জরুরি বিভাগ থেকে তাদেরকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে ভর্তি রাখা হয়েছে।

 

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।