গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি কাঙ্খিত নয় সরকার আরো এক দফা গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে। গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানির মূল্য বৃদ্ধি মানে জনজীবনে নতুন করে চাপ সৃষ্টি। কারণ সাধারণ মানুষের জন্য অর্থাৎ যারা সীমিত আয় করেন তাদের জন্য দৈনন্দিন ব্যয়ভার বহন করা অনেক কষ্টকর। এ অবস্থায় গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি করা হলে তা জনগণের জন্য অসহনীয় হবে তো বটেই, অসন্তোষও বাড়বে নিঃসন্দেহে। সম্প্রতি সংবাদপত্রে প্রকাশিত একটি সংবাদে দেশে প্রথমবারের মতো তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানিকে কেন্দ্র করে দেশে উৎপাদিত প্রাকৃতিক গ্যাসের দাম বাড়ালে জ্বালানি খাতে আর ভর্তুকি দিতে হবে না চিন্তা থেকেই দাম বৃদ্ধিতে যেতে চাচ্ছে সরকার-এমন তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। কিন্তু এই যুক্তি জনমানুষের মনে কতটা ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে তা ভেবে দেখার দায়িত্ব দায়িত্বশীলদের। তবে আমরা সরকারের এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার দাবি রাখে বলে মনে করি। নিত্যপণ্যের বাজার নিয়ে সাধারণ মানুষের মনে যথেষ্ট অসন্তোষ রয়েছে। কারণ এ দেশের মানুষের প্রধান খাদ্য ভাতের জোগাড় করতে চড়া মূল্যে চাল কিনতে হয়েছে। সেইসঙ্গে পেঁয়াজের দাম ছিল স্মরণকালের মধ্যে উচ্চমূল্য। সবজির বাজারও কম ভোগায়নি। চাল, মাছ, মাংস, সবজি ছাড়াও অন্যান্য পণ্যও ধারাবাহিক মূল্য বৃদ্ধির কবলে পড়েছে। সরকার সময়মতো এর কোনোটিই নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি। এ কথা মত্য যে, মূল্য বৃদ্ধিতে কেউ না খেয়ে থাকেনি। তবে এতে বাস্তবতার বিচার করা যায় না। কারণ না খেয়ে না থাকলেও মানুষের সঞ্চয় খাতে টান পড়েছে। চিকিৎসা এবং বিনোদনে ছাড় দিতে হয়েছে। অন্যদিকে কেনাকাটায়ও কাটছাঁট করতে বাধ্য হয়েছে। জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী এলএনজি এলে বিদ্যুৎসহ শিল্প ও বাণিজ্যিক সংযোগে মূল্য সমন্বয় করার কথা বললেও আবাসিক গ্রাহকদের ক্ষেত্রেও দাম বৃদ্ধি করা হবে কিনা তা স্পষ্ট করেননি। তবে শিল্পকারখানা সংশ্লিষ্টরা গ্যাসে উচ্চমূল্য পরিশোধ করতে বাধ্য হলে উৎপাদিত পণ্যের সঙ্গে তা সমন্বয় করে মূল্য আদায় করতে চাইবে এটি স্বাভাবিক। সুতরাং গ্যাসের মূল্য যে খাতেই বৃদ্ধি করা হোক না কেন এর নেতিবাচক প্রভাব জনজীবনে পড়তে বাধ্য। শিল্প-কারখানায় নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস সরবরাহ করা সম্ভব না হওয়ায় অনেক শিল্প প্রতিষ্ঠান উৎপাদনে যেতে পারছে না এটা যেমন বাস্তবতা তেমনি উৎপাদন নিশ্চিত করতে গিয়ে খরচ বৃদ্ধি পেলে নিত্যবাজারে এর নেতিবাচক প্রভাব পড়বেই। সুতরাং সরকারকে এ ব্যাপারে অনেক ভেবেচিন্তে পা ফেলতে হবে। এই মুহূর্তে এলএনজি গ্যাস আমদানি বা গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি কতটা যুক্তিযুক্ত, এর প্রভাব কতটা নেতিবাচক হয়ে উঠতে পারে এসব ভেবে, প্রয়োজনে জরিপের সাহায্য নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ যৌক্তিক হবে বলে মনে করি।

349