চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ৪ আগস্ট ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গোসল না করে ২২ বছর

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
আগস্ট ৪, ২০২২ ৮:৫৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বিস্ময় প্রতিবেদন: আমাদের দেশে শীতকালে অনেকেরই গোসলের প্রতি অনীহা কাজ করে। ইতিহাস ঘাটলে অনেক রথী-মহারথীদের তালিকা পাওয়া যাবে যাদের গোসলের প্রতি অনীহা ছিল। সম্প্রতি ভারতের বিহারের বৈকুণ্ঠপুর গ্রামের এক ব্যক্তির সন্ধান পাওয়া গেছে যিনি গোসল না করে ২২ বছর কাটিয়েছেন! ধরমদেব রাম নামের এই ব্যক্তির বয়স ৬২। তার বয়স যখন ৪০ ঠিক তখন থেকেই গোসল বাদ দিয়েছেন। এরপর কেটে গেছে ২২ বছর গোসলের উদ্দেশ্যে একবারের জন্যও শরীরে পানি স্পর্শ করাননি। মূলত, এক রকম প্রতিজ্ঞা করেই এই অসাধ্য সাধন করেছেন ধরমদেব। ইটিভি ভারতকে তিনি বলেন, ‘১৯৭৫ সালে পশ্চিমবঙ্গের জগদ্দলে একটি কারখানায় কাজ করতাম। ১৯৭৮ সালে আমি বিয়ে করে খুব স্বাভাবিক জীবযাপন করছিলাম। হঠাৎ উপলব্ধি করলাম— জমি সংক্রান্ত বিবাদ, নারীদের ওপর সহিংসতার ঘটনা এবং নিরীহ পশু হত্যা ক্রমশ বেড়েই চলেছে। এর উত্তর খুঁজতে একজন গুরুর শরণাপন্ন হই। সেই গুরু আমাকে শিষ্য হিসেবে গ্রহণ করেন এবং ভক্তির পথ অনুসরণ করতে বলেন। সেই থেকে ভক্তির পথ অনুসরণ করি ও ধ্যান করতে থাকি।’ ধরমদেব ২০০০ সালে চাকরি থেকে ইস্তফা দেন। যদিও তার পরিবার তাকে আবার কাজে ফিরতে জোর করেন। এরপর থেকে তিনি খাওয়া ও গোসল বাদ দেন। কারখানার মালিক বিষয়টি জানতে পারলে তাকে চাকরিচ্যুত করেন। পরে ধরমদেব বাড়ি ফিরে আসেন। ধরমদেবের স্ত্রী মায়া দেবী ২০০৩ সালে মারা যান। তখনও তিনি গোসল করেননি। পরে তার এক সন্তান মারা গেলেও তার প্রতিজ্ঞায় অটল থেকেছেন। গত ৭ জুলাই তার আরেক সন্তানের মৃত্যু হয়। তবে গোসল না করার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেননি ধরমদেব। যদিও দীর্ঘদিন ধরে গোসল না করার ফলে তার কোনো শারীরিক সমস্যাও হয়নি।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।