চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ২৮ নভেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গেইলকেও ছাপিয়ে গেলেন তামিম

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ২৮, ২০১৬ ৬:১৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

42185_ff

খেলাধুলা ডেস্ক: ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং দানব ক্রিস গেইল এলেন এবং মাঠ মাতালেন। গতকাল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে গতকালই প্রথম নামেন এ আসরে তিনটি সেঞ্চুরির মালিক গেইল। রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে চিটাগং ভাইকিংসের হয়ে তার খেলা দেখতে মিরপুরের শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে দর্শক সমাগমও হয়েছিল বেশ। টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে নেমেই গেইল নানা অঙ্গভঙ্গি করে আনন্দ দেন দর্শকদের। আগের খেলাগুলোতে দাপটের সঙ্গে জয় পাওয় রংপুর কাল সুবিধা করতে পারেনি। ৬ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১২৪ রান তুলতে সক্ষম হয় তারা। এতে গেইলের খেলা দেখার জন্য অধীর আগ্রহে থাকে দর্শকেরা। শেষ পর্যন্ত তার ব্যাটিং তাদের ক্ষুধা খানিকটা হলেও মেটাতে সক্ষম হন। অনেক দিন পরে মাঠে খেলতে নেমে শুরুতে বেশ স্নায়ুর চাপে ছিলেন বাঁ হাতি এ ওপেনার। প্রথম আট বলে করেন মাত্র ২ রান। এরপরে তিনি তার ছন্দ ফিরে পান। দশম বলে এসে রুবেল হোসেনের ওভারে প্রথম চার মারেন তিনি। এরপরের ওভারে সোহাগ গাজীর শেষ ২ বলে দুটি ছক্কা হাঁকান তিনি। পরের ওভারে রুবেলের বলে এক চারসহ ৫ রান। তারপরে সোহাগ গাজীকে বদলে আনা হয় শহীদ আফ্রিদিকে। তার প্রথম বলে চার নেন তামিম। তৃতীয বলে আসেন গেইল। কোন রান নেননি। চতুর্থ বলে চক্কা। পরের বলে বলও উড়িয়ে মাঠের বাইরে। তবে টি-২০র সেরা অলরাউন্ডার আফ্রিদির ফাঁদে আটকে যান গেইল। ২৬ বলে ৪০ রান করে সাজঘরে ফেরেন তিন। দলের রান তখন ৭০। দুই চারের পাশে চার ছক্কা হাঁকান তিনি। গেইলের বিদায়ের পর দলকে টেনে নেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ৪১ বলে ফিফটি করে তিনিই দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান। তামিম শেষ পর্যন্ত ৪৮ বলে ৬২ রান করে অপরাজিত থাকেন। ম্যাচ সেরাও হন তামিম ইকবাল। আসরে এটি তার তৃতীয় ফিফটি। এ জয়ে ৯ খেলায় ১০ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে উঠে এলো চিটাগং ভাইকিংস। আট খেলায় সমান পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে রংপুর। ঢাকা ও খুলনা ৯ খেলায় ১২ পয়েন্ট করে নিয়ে রয়েছে প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে। আসরের প্রথম সাক্ষাতেও রংপুর রাইডার্সকে ১২৫ রানের টার্গেট দিয়েছিল চিটাগং ভাইকিংস। ওই ম্যাচে ৯ উইকেটে জয় দেখে রংপুর। রোববার রংপুরের ব্যাট হাতে ২০ রানের কোঠা পার করতে পারেননি কেউই। সর্বোচ্চ ২৬ রান করেন ওপেনার সৌম্য সরকার। আফগান ওপেনার মোহাম্মদ শাহজাদ ২১ ও ব্যাট হাতে পাকিস্তানি অলরাউন্ডার আনোয়ার আলী করেন ২০ রান। চিটাগংয়ের বল হাতে আফগান অফস্পিনার মোহাম্মদ নবী ও স্বদেশি পেসার তাসকিন আহমেদ নেন সমান দুই উইকেট। ১২৪/৬ সংগ্রহ নিয়ে ইনিংস শেষ করে রংপুর। চলতি আসরে ১৬ উইকেট নিয়ে তালিকার শীর্ষে খুলনার শফিউল ইসলামকে ছুঁলেন মোহাম্মদ নবী। এক ম্যাচ পর রংপুর রাইডার্স দলে খেলেন শহীদ আফ্রিদি। মিরপুর শেরেবাংলা মাঠে চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিং বেছে নেন রংপুর রাইডার্স অধিনায়ক নাঈম ইসলাম।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।