চুয়াডাঙ্গা শনিবার , ৯ এপ্রিল ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা ৩ সেপ্টেম্বর শুরু

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
এপ্রিল ৯, ২০২২ ১০:৫১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন:

আগামী ৩, ১০ ও ১৭ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে উপাচার্য পরিষদ। অর্থাৎ তিনটি ধাপে এ পরীক্ষার আয়োজন করা হবে। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেথ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যদের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করে বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি উপাচার্য অধ্যাপক মোহাম্মদ নূর গতকাল শুক্রবার রাতে একটি পোর্টালকে জানান, উপাচার্য পরিষদের সভা হয়েছে। সেখানে সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, এবার দেশের ৩২ বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। এ পরীক্ষা আগামী ৩, ১০ ও ১৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। আজকের সভায় ভর্তি পরীক্ষার শুধু সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজ নিজ একাডেমিক কাউন্সিলের সভা করে পরবর্তী প্রস্তুতি গ্রহণ করবে। তবে গুচ্ছ সাত কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষা এর বাইরে আয়োজন করা হবে। এ পরীক্ষায় সেপ্টেম্বর মাসের যেকোনো সময় নির্ধারণ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এদিকে গত বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের এক সভায় দেশের ৩২টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক পর্যায়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ বছর নতুন করে গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষা অংশ নেবে কিশোরগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, চাঁদপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং কৃষি গুচ্ছে হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়। সভা সূত্রে জানা গেছে, ভর্তি পরীক্ষা সময়সূচি বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ সভা করে চূড়ান্ত করবে। তবে, এবছর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রের বাইরে বিভিন্ন কলেজে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে। গুচ্ছের বাইরে থাকা আটটি বিশ্ববিদ্যালয় নিজেদের মতো ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করবে। সভায় গুচ্ছের বাইরে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়সমূহকে দ্রুত ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি, ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ, ফলাফল ও ভর্তির সময় প্রকাশ করা, কেন্দ্রীয়ভাবে সাবজেক্টের প্লেসমেন্ট করা, বিভাগ পরিবর্তনের সময় নির্ধারণ, ভর্তি ফি একবার প্রদানের সুপারিশ করে ইউজিসি। এছাড়া, ইউজিসির পক্ষ থেকে ভর্তি পরীক্ষার ফি ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে আসন সংখ্যা কমানোর পরামর্শ দেওয়া হয়। এছাড়াও কোন সিলেবাসে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে এবং দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ প্রদানের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সভায় সিদ্ধান্ত গ্রহণের আহ্বান জানানো হয়। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান (রুটিন দায়িত্ব) প্রফেসর ড. দিল আফরোজা বেগমের সভাপতিত্বে সভায় কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর, প্রফেসর ড. বিশ্বজিৎ চন্দ, প্রফেসর ড. মো. আবু তাহের, কমিশনের সচিব ড. ফেরদৌস জামান, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ জামিনুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভায় ৩৬টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও উপাচার্যদের মনোনীত প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।