চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ১২ আগস্ট ২০১৬

গাংনী রুয়েরকান্দিতে সোনার পুতুলের বিনিময়ে টাকা নিতে এসে বিপত্তি: গ্রেফতার জ্বিনের বাদশা : পালিয়ে গেছে সহযোগীরা

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ১২, ২০১৬ ৭:০৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

গাংনী অফিস: গাংনী উপজেলার রুয়েরকান্দি গ্রামের জি¦নের বাদশা সেজে টাকা হাতিয়ে নিতে গেলে ফজলু মিয়া (৪৫) নামের একজনকে আটক করে পুলিশ। এক নারীর কাছে সোনার পুতুলের বিনিময়ে টাকা নিতে এসে এমন গ্যাড়কলে পরে আটক হয় পুলিশের হাতে। ফজলু মিয়া গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কমলনারায়নপুর গ্রামের মৃত জলিল ওরফে জুলুর ছেলে। পুলিশ জানান, এ উপজেলার রুয়েরকান্দি গ্রামের এক নারীর মোবাইলে জি¦নের বাদশা সেজে টাকা দাবি করে ফজলুসহ প্রতারক চক্রের সদস্যরা। বিষয়টি বুঝতে পেরে ওই নারী তাদেরকে পুলিশে দেওয়ার পরিকল্পনা করেন ওই নারী। সেমত বুধবার দুপুরে গাংনী হাসপাতাল বাজারে সোনার পুতুল দেওয়ার কথা বলে ১৬ হাজার টাকা নিতে ফজলু ও তার চক্রের কয়েকজন ডাকে। এ সময় ওই পুতুল দিয়ে টাকা নিতে গেলে স্থানীয়দের সহায়তায় ফজলুকে আটক পুলিশ। এ সময় পালিয়ে যায় ফজলুর দুই সহযোগী। পরে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। এসময় তার কাছ থেকে একটি সোনালী রংয়ের পুতুল উদ্ধার করা হয়। গাংনী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, এ ঘটনায় ওই নারী বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। গত বুধবারই ফজলুকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। ফজলুর আরো দুই সহযোগি পালিয়ে যায়।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।