চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ১০ জুন ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গাংনীতে বৈধ নিবন্ধন না থাকায় একটি হসপিটাল সিলগালা

ঘণ্টা না পেরুতেই পুনরায় কার্যক্রম শুরু
সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুন ১০, ২০২২ ১০:৩৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদক: মেহেরপুরের গাংনীর বামন্দীতে অবস্থিত সেন্ট্রাল হসপিটাল নামের বেসরকারি চিকিৎসা কেন্দ্র সিলগালা করে দিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাসহ একটি টিম সেখানে অভিযান চালায়। সেন্ট্রাল হসপিটালটির বৈধ নিবন্ধন না থাকায় তা সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এছাড়াও যাদের বৈধ নিবন্ধন রয়েছে, তাদেরকে নিয়ম মেনে প্রতিষ্ঠান চালানোর নির্দেশ প্রদান করেন।

গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সুপ্রভ্রা রাণী জানান, কিছুদিন আগে এ প্রতিষ্ঠানটিতে এসে নিবন্ধনকরণের জন্য নোটিশ প্রদান করা হয়। কিন্তু কর্তৃপক্ষ অদ্যবধি নিবন্ধন না করায় নিয়মানুযায়ী সিলগালা করা হয়েছে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান এই স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা।

এদিকে, সেন্ট্রাল হসপিটাল সিলগালা করার এক ঘণ্টা যেতে না যেতেই হসপিটাল খুলে রোগী দেখছেন ডাক্তার। সিলগালা করা হসপিটাল কীভাবে খোলা রেখেছেন জানতে চাইলে ল্যাব টেকনিশিয়ান বিল্লাল হোসেন বেলাল জানান, হসপিটাল সিলগালা করেনি। শুধুমাত্র ল্যাব সিলগালা করেছে। তাই ডাক্তার রোগী দেখতে পারেন। কিন্তু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা বা ল্যাবের কোনো কাজ করা যাবে না।

গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার বরাত দিয়ে সেন্ট্রাল হসপিটালের পরিচালক শফিকুল ইসলাম জানান, ল্যাব বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। কিন্তু ডাক্তার রোগী দেখতে পারবেন। এ ব্যাপারে গাংনী উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা শুপ্রভা রানী জানান, লাইসেন্স না থাকার কারণে সেন্ট্রাল হাসপাতালের ল্যাব সিলগালা করা হয়েছে। তারা কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে পারবে না। তবে ডাক্তার রোগী দেখতে পারবেন। সংবাদটি প্রচার না করারও পরামর্শ দেন তিনি।

মেহেরপুর সিভিল সার্জন ডা. মো. জোয়াহেরুল আনাম সিদ্দিকী জানান, ‘সিলগালা করা হসপিটালটি একটি ভবনে হলে সেটার সমস্ত কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। সেখানে কোনো কার্যক্রম চালাতে পারবে না। বিষয়টি আমি দেখছি।’

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।