চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ২১ জুলাই ২০১৭

গাংনীতে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

সমীকরণ প্রতিবেদন
জুলাই ২১, ২০১৭ ৬:০৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Strike 111গাংনী অফিস: মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার পোড়া পাড়া গ্রামে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকা অনশন করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে প্রেমিকা রুনা (১৯) বিয়ের দাবিতে প্রেমিক আব্দুল্লাহ’র বাড়িতে অবস্থান নেয়।
জানা গেছে, একই উপজেলার সাহারবটি গ্রামের জামালের মেয়ে রুনা ও পোড়াপাড়া গ্রামের খবিরের ছেলে আব্দুল্লাহর সাথে প্রায় তিন বছর প্রেমের সম্পর্ক  চলে আসছে। এর এক পর্যায়ে উভয়ের মধ্যে সম্পর্ক আরো গাঢ় হয়। পরে রুনা তাকে বিয়ের জন্য বলে। কিন্তু প্রেমিক আব্দুল্লাহ পরে বিয়ে করব বলে আশ্বাস দিয়ে আসে। এ ঘটনার জের ধরে ঘটনার দিন প্রেমিকা রুনা প্রেমিক আব্দুল্লাহর বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অনশন করে।
এ ঘটনার বিষয়ে প্রেমিকা রুনার সাথে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, সাহারবাটি গ্রামে সিঙ্গাপুর ট্রেনিং সেন্টারে আব্দুল্লাহ ট্রেনিং করতে যায়। সেখানে আমাদের মধ্যে দেখা দেখি পরে মন দেওয়া নেওয়া হয়। এভাবে আমাদের মধ্যে তিন বছর যাবত প্রেমের সম্পর্ক চলছে। এর মধ্যে আব্দুল্লাহ তাকে বিয়ে করবে বলে আশা দেয়। পরে তার সাথে মোবাইলে কথোপকথোন চলতে থাকে। একদিন হঠাৎ সে আমার সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়। অনেক কষ্ট করে আবারো তার সাথে যোগাযোগ করি এবং বুঝতে পারি সে আমাকে এড়িয়ে চলছে-বিয়ের কথা বললে সে প্রেমের কথা অস্বীকার করে। এ কারণে তার বাড়িতে অবস্থান নিয়েছি।
এদিকে প্রেমিক আব্দুল্লাহ’র ঘটনা এরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে উল্টো মেয়ের পরিবারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মিথ্যা তথ্য দেয়। বিষয়টি শুনে ঘটনাস্থলে মেয়ের বাবা জামাল ও তার চাচা সহ কয়েকজন উপস্থিত সেখানে মেয়েকে ফেরাতে ছুটে যায়। মেয়ের বাবা লোকজনের মধ্যে বলতে থাকেন মেয়ে আত্মহত্যা করলে এর দ্বায়ভার ছেলেকে নেওয়া লাগবে।
এদিকে এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। উৎসুক জনতা ভিড় করে আব্দুল্লাহর বাড়িতে। পরে গাংনী থানার এসআই আনিছুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে উত্তেজনা পরিস্থিতি এড়াতে লোকজন সরিয়ে দেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।