চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ৩০ আগস্ট ২০১৬

গাংনীতে চোর সন্দেহে ভুলক্রমে স্ত্রীর হাসুয়ার কোপে স্বামী জখম

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ৩০, ২০১৬ ১২:১২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

gvdfgef
গাংনী অফিস: ঈদ সামনে চুরি আতংক্ষ বিরাজ করছে সাধারণ মানুষের মাঝে। কুথায় আবার চুরি প্রতিরোধে পাহারা দিচ্ছে গ্রামবাসী। চুরি আতংক্ষের কারণে গাংনীর কোদালকাটি গ্রামের আব্দুস সামাদ (৪০)কে ভুল ক্রমে  নিজ স্ত্রী চোর ভেবে হাসুয়া দিয়ে কুপিয়ে আহত করেছে। গত রোববার গভির রাতে আব্দুস সামাদ গোয়াল ঘরের পাশে মাচা পেতে শুয়ে ছিল। আর স্ত্রী ময়ুরী শুয়ে ছিল ঘরের পিড়িতে। গভীর রাতে গরুর খাবার দিতে উঠে স্বামী সামাদ। এসময় বিদ্যুত চলে যায়। গোয়াল ঘরে লোকজনের অবস্থান টের পেয়ে ঘুমের ঘরে স্ত্রী ময়ুরী ছুটে যান গোয়ালে। স্বামী আব্দুস সামাদ কিছু বুজার আগেই চোর ভেবে ধারালো হাসুয়া দিয়ে পর পর দুই কোপ দেন স্বামী সামাদের পায়ে। সেই সাথে চোর চোর বলে চিৎকার দেন ময়ুরী। প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসে এর মধ্যে আব্দুস সামাদের পরিচয় পায় তার স্ত্রী। তিনি ভাবেন কি করলাম চোর ভেবে  স্বয়ং গৃহস্বামী সামাদকে কুপিয়ে জখম করলাম। তাৎক্ষনিক ভাবে স্ত্রীসহ স্থানীয় লোকজন তাকে প্রথমে বামন্দি ও পরে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য নেয়। এঘটনা এলাকায় বেশ আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। চোর সন্দেহ স্ত্রীর কোপ খেলেন স্বামী। এমন ঘটনা খুব কমই ঘটে বলে মন্তব্য করেন অনেকে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।