চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ১৪ অক্টোবর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গাংনীতে কেএবি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ১৪, ২০১৬ ১২:৫১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

eeee

গাংনী অফিস: গাংনী উপজেলার কড়ুইগাছিতে কেএবি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নিয়ম বর্হিভুত ভাবে ব্যাংক হিসেব খোলার জন্য প্রতি শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ১০০ টাকা করে উত্তলোন করেছন প্রধান শিক্ষক রাজু। ব্যাংক হিসেব খোলা ও অন্যন্যা খরচ দেখিয়ে এ টাকা উত্তোলন করা হয়েছে দাবি করেছেন প্রধান শিক্ষক। এদিকে টাকা উত্তোলন নিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে উঠেছে সমালোচনার ঝর। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন উপজেলা মাধ্যমিক অফিসার মীর হাবিবুল বাশার। অভিযোগ সুত্রে প্রকাশ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার কেএবি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১৩৯ জন শিক্ষার্থী উপবৃত্তির টাকা পাবার জন্য নতুন তালিকা ভুক্ত হয়। সরকারী নিয়ম অনুযায়ী উপবৃত্তির টাকা প্রাপ্তদের ফ্রি ব্যাংক হিসেব খোলা হবে। কিন্তু কেএবি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাজু আহম্মেদ শিক্ষার্থী প্রতি ১০০ টাকা করে নেন। এতে কড়–ইইগাছি, এলাঙ্গীসহ আশপাশ এলাকার অভিভাবকদের মাঝে বইছে সমালোচনার ঝর। এলাঙ্গী গ্রামের সাদ আহম্মেদ জানান, তার মেয়ে সাদিয়া দশম শ্রেণীর ছাত্রী গত কয়েকদিন আগে প্রধান শিক্ষক ব্যাংক একাউন্ট খোলার নাম করে ১শ টাকা নেন। একই কথা বলেন, গ্রামের নবম শ্রেণীর ছাত্র রিমন, ৮ম শ্রেণীর রাজা, ৬ষ্ট শ্রেণীর লিখনসহ অনেকে। তারা বলেছেন, প্রধান শিক্ষক রাজু আহম্মেদ হিসেব খোলার জন্য এ টাকা গ্রহণ করেছেন। এদিকে সরকারী নিয়ম অনুযায়ী ফ্রি ব্যাংক একাউন্ট খোলার বিষয়টি প্রচার হলে এলাকায় প্রধান শিক্ষক রাজুর দুর্নীতির বিরুদ্ধে ফুসে উঠেছে এলাকার লোকজন। তারা প্রধান শিক্ষক রাজুর বিরুদ্ধে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে কতৃপক্ষের নিকট দাবি জানিয়েছেন। এব্যাপারে প্রধান শিক্ষক রাজু আহম্মেদ প্রথমে অস্বীকার গেলেও পরে টাকা উত্তোলনের কথা স্কীকার করেছে। এবিষয়ে গাংনী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মীর হাবিবুল বাশার, বলেছেন তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।