চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ১৪ এপ্রিল ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গাংনীতে আনসার ভিডিপি সদস্যের বিরুদ্ধে সরকারি ঘর দেওয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
এপ্রিল ১৪, ২০২২ ৯:৪২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

প্রতিবেদক, গাংনী:

মেহেরপুরের গাংনীতে আনসার ভিডিপি সদস্য মিল্টন হোসেনের বিরুদ্ধে সরকারি ঘর দেওয়ার নামে দরিদ্র কৃষকের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গতকাল বুধবার দুপুরে উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগীর জামাই মোহন আলী। অভিযুক্ত আনসার সদস্য কাথুলী ইউনিয়নের লক্ষীনারায়ণপুর গ্রামের বাসিন্দা ও উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসের গুদামে নিরাপত্তা প্রহরী হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

মোহন আলী জানান, তাঁর শ্বশুর ধানখোলা ইউনিয়নের জুগিন্দা গ্রামের রজব আলীকে সরকারি ঘর পাইয়ে দেওয়ার নামে প্রায় দেড় বছর আগে ১২ হাজার টাকা নেয় আনসার সদস্য মিল্টন হোসেন। দীর্ঘ সময় পার হলেও ঘর দিতে না পারায় টাকা ফেরত চাইলেও নানা টালবাহানা শুরু করেন তিনি। এক প্রকার বাধ্য হয়ে গাংনী উপজেলা ও জেলা আনসার কর্মকর্তাসহ বিভাগীয় কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি।

এদিকে সাহারবাটি ইউনিয়নের হিজলবাড়িয়া গ্রামের শাহজামালের স্ত্রী ভানুয়ারা খাতুন বলেন, ‘আনসার সদস্য মিল্টন হোসেন সরকারি ঘর দেওয়ার নামে ৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নিলেও ঘর তো দূরের কথা, টাকাও ফেরত দিচ্ছে না। তার বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দেব।’ পুরাতন মটমুড়া গ্রামের নয়ন আলী বলেন, মাতৃত্বকালীত ভাতা করে দেওয়ার নামে ১০ জনের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে মিল্টন হোসেন। কিন্তু ভাতার কার্ড করে দিতে পারেনি। এ জন্য টাকা ফেরত দেবে বলে অঙ্গীকার করেছে।

এবিষয়ে জানতে অভিযুক্ত মিল্টন হোসেনের মোবাইলে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ না করায় তা সম্ভব হয়নি। এ বিষয়ে গাংনী উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা উর্মিলা বিশ্বাস বলেন, মোহন আলী নামের এক ব্যক্তি আনসার ভিডিপি সদস্য মিল্টন হোসেনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তাঁর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। জেলা আনসার কমাড্যান্ট মো. সাহাদত হোসেন বলেন, বিষয়টি তদন্ত কমিটি গঠন করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।