চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ১৪ মে ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গাঁজা সেবন করে ভাবীর ঘরে প্রবেশ করায় সংঘর্ষ : চাচা-ভাস্তে তিনজন জখম

সমীকরণ প্রতিবেদন
মে ১৪, ২০২১ ১০:২৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক:
আলমডাঙ্গায় গাঁজা সেবন করে ভাবীর ঘরে প্রবেশ করাকে কেন্দ্র করে চাচা-ভাস্তের সংঘর্ষে তিনজন গুরুতর জখম হয়েছে। ঈদের দিন শুক্রবার সন্ধ্য ৭টার দিকে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার ঘোলদাঁড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে পরিবারের সদস্যরা গুরুতর জখম অবস্থায় আহতদেরকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। আহতরা হলেন- ঘোলদাঁড়ি গ্রামের বুড়াপাড়ার জোনাব আলীর দুই ছেলে সোয়েব (২০) ও লিখন (১৮) এবং একই এলাকার আবু জাফর হাসানের ছেলে গাঁজা সেবন করে ভাবীর ঘরে প্রবেশের অভিযুক্ত মেহেদি হাসান (৩৫)।
আহত লিখন অভিযোগ করে বলে, ‘সন্ধ্যায় আমার মা ঘরে একা কাজ করছিলো। আমরা বাড়ির বাইরেই ছিলাম। এসময় আমার চাচা মেহেদি গাঁজা সেবন করে মায়ের ঘরে ঢুকে অসৌজন্যমূলক আচরণ করে। মায়ের চিৎকারে আমরা দুইভাই ঘরে দৌঁরে গেলে চাচা আমাদেরকে গালি দিতে থাকে। গালি দিতে নিষেধ করলে ঘরে থাকা একটি বটি দিয়ে চাচা আমার মাথায় কোপ দেয়। এসময় আমার বড় ভাই সোয়েব- চাচাকে ঠেকাতে গেলে ভাইকেও আঘাত করে।’
অভিযুক্ত মেহেদি হাসান বলেন, ‘আমি কিছুই করিনি, এমনিতেই ভাবীর সঙ্গে কথা বলতে গেছিলাম। এসময় তাঁর দুই ছেলে অকারণে আমাকে মেরে জখম করেছে।’
জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সাজিদ হাসান বলেন, আহতদের তিনজনের মাথাসহ শরীরে বিভিন্ন আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাদেররে জরুরি বিভাগ থেকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে হাপসপাতালের পুরুষ সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি রাখা হয়েছে।
শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আহতদের পরীবারের পক্ষ থেকে আলমডাঙ্গা থানায় পাল্টা-পাল্টি মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।