গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় মেয়র মতিয়ারকে স্মরণ

দর্শনা অফিস:
গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় প্রয়াত মেয়র মতিয়ারকে স্মরণ করলো দর্শনাসহ চুয়াডাঙ্গা জেলাবাসী। মেয়র মতিয়ার রহমানের অকাল প্রয়াণে দর্শনাসহ চুয়াডাঙ্গার মানুষ কতটা ব্যাথিত তা উঠে আসে স্মরণসভায় আলোচকদের স্মৃতিচারণে। গতকাল রোববার বিকেল সাড়ে তিনটায় দর্শনায় নাগরিক কমিটির উদ্যোগে প্রয়াত মেয়র মতিয়ার রহমানের স্মরণে অনুষ্ঠিত হয় শোকসভা। বিশিষ্ট সমাজসেবক জাহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধু চত্বরে অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় চুয়াডাঙ্গা, দর্শনা ও জীবননগর এলাকার সর্বদলীয় জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন পেশাজীবী, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের কর্মীদের আলোচনায় সাধারণ মানুষের মনে প্রয়াত মেয়র মতিয়ার জীবন্ত হয়ে ওঠেন।
শোকসভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তিলাওয়াত, স্মৃতিচারণ এবং প্রয়াত মেয়র মতিয়ার রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এছাড়াও শোকসভাস্থলে প্রয়াত মেয়র মতিয়ার রহমানের জীবনে চলার পথের অসংখ্য ছবি গ্যালারিতে প্রদর্শিত হয়। পরে নাগরিক কমিটির পক্ষে কমিটির আহ্বায়ক গোলাম ফারুক আরিফ, দর্শনা প্রেসক্লাবের সভাপতি আওয়াল হোসেন, ইত্তেফাকের সাংবাদিক মনিরুজ্জামান ধীরু, মাহাবুবুর রহমান মুকুল, স্বরূপ কুমার দাস, হানিফ মন্ডলসহ অন্যান্য সদস্যরা মতিয়ার রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করেন। এরপর দর্শনা পৌরসভার কর্মকর্র্তারা পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন।
পরবর্তীতে প্রয়াত মতিয়ার রহমানের রাজনৈতিক, মেয়র পদে থাকাকালীন তাঁর জীবনের নানা স্মৃতি তুলে ধরে বক্তব্য দেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজাদুল ইসলাম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান মন্জু, দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলী মুনছুর বাবু, জীবননগর উপজেলার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম মর্তুজা ও আবু মো. আব্দুল লতিফ আমল, জাসদ (রব)-এর জেলা কমিটির সভাপতি তৌহিদ হোসেন, চুয়াডাঙ্গা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটার বিল্লাল হোসেন, দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক হাউলী ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম ও প্রয়াত মেয়রের স্ত্রী রোজিনা রহমান।
এসময় উপস্থিত সর্বস্তরের মানুষের মাঝে শোকে আচ্ছন্ন হয়ে আশেপাশের বাতাস ভারি হয়ে ওঠে। এছাড়া সাবেক উপাধ্যক্ষ মোশাররফ হোসেন, চুয়াডাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন হেলা, বাংলাদেশ জাসদের বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ারুল ইসলাম বাবু, বীর মুক্তিযোদ্ধা রুস্তম আলী, জাসদ (ইনু)-এর জেলা কমিটির সভাপতি আকসিজুল ইসলাম রতন, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির জেলা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মজনুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল করিম সবুর, দর্শনা পুরাতন বাজার মন্দির কমিটির সভাপতি উত্তম কুমার দেবনাথ, দর্শনা প্রেসক্লাবের সভাপতি আওয়াল হোসেন, সদস্য হানিফ মন্ডল, দর্শনা সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি হারুন অর রশিদ, সাংবাদিক আর কে লিটন, প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি স্বরূপ কুমার দাস, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আরতি হালসানা, দর্শনা সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জেল হোসেন তপু প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন গোলাম ফারুক আরিফ ও শিক্ষক রাসেল আহমেদ শাওন।