খুলনা-গাজীপুর নির্বাচন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র উদ্বিগ্ন

373

সমীকরণ ডেস্ক: ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট বলেছেন, খুলনা ও অতি সম্প্রতি অনুষ্ঠিত গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ব্যালট বাক্স ছিনতাই এবং বিরোধী রাজনৈতিক নেতা ও পোলিং এজেন্টদের ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগের খবরে যুক্তরাষ্ট্র উদ্বিগ্ন।এছাড়া বিরোধী রাজনৈতিক নেতা ও পোলিং এজেন্টদের গ্রেপ্তার ও পুলিশি হয়রানির বিষয়েও যুক্তরাষ্ট্র উদ্বিগ্ন। গতকাল বৃহস্পতিবার ডিপ্লোমেটিক করেসপনডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ডিকাব) আয়োজিত অনুষ্ঠানে মার্শা বার্নিকাট এ উদ্বেগের কথা জানান। ডিকাব সভাপতি রেজাউল করিমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ মিশু। অনুষ্ঠানে মার্শা বার্নিকাট বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকার একটি অবাধ, সুষ্ঠু, অংশগ্রহণমূলক ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন আয়োজনে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, যে নির্বাচনে জনগণের মতামতের প্রতিফলন ঘটবে। আমরা দেখতে চাই, সরকার তার অঙ্গীকার পূরণ করবে।’ গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভালো-খারাপ সব রকম দৃশ্যই দেখা গেছে। ভোটারের কাছ থেকে ব্যালট নিয়ে সিল মারা, বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ, ব্যালট ছিনতাই, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এজেন্টদের হুমকি ও কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া, কেন্দ্রের ভেতরে-বাইরে সরকারি দলের নেতা-কর্মীদের দাপটসহ সর্বত্র নিয়ন্ত্রণ ছিল। আবার কিছু কিছু কেন্দ্রে ভালো ভোটের চিত্রও দেখা গেছে। আওয়ামী লীগ-সমর্থিত ও দলের ‘বিদ্রোহী’ কাউন্সিলর পদপ্রার্থীদের মধ্যে বিক্ষিপ্ত সংঘাত, পাল্টাপাল্টি ধাওয়া হলেও বড় ধরনের কোনো গোলযোগ বা রক্তপাতের ঘটনা ঘটেনি। তারপরও নয়টি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। অভিযোগ আছে, এজেন্টদের কেন্দ্রছাড়া করার ক্ষেত্রে নেওয়া হয়েছে অভিনব কৌশল। আর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের একটি অংশকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে।
কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, মূলত বিএনপির মেয়র প্রার্থীর এজেন্টদের কেন্দ্রছাড়া করার পরই বিভিন্ন কেন্দ্রে ব্যালটে সিল মেরে বাক্সভর্তি করার ঘটনাগুলো ঘটেছে। এতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও নির্বাচন-সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের একটা অংশের বড় ভূমিকা ছিল। বাংলাদেশের জিএসপি সুবিধা ফিরিয়ে দেওয়া হবে কি না জানতে চাইলে যুক্তরাষ্ট্রের দূত বলেন, আগের চাইতে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পে অনেক উন্নতি হয়েছে। তবে এখনও অনেক পোশাক কারখানায় নিরাপত্তা ও অবকাঠোমোগত সমস্যা রয়েছে। সেসব বিষয়ে পরিবর্তন জরুরি। বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে না গেলে বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের ক্ষতি হতে পারে।
উল্লেখ্য, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের নতুন নেতৃত্ব বেছে নিতে মঙ্গলবার (২৬জুন) কর্পোরেশনের ৪২৫টি ভোট কেন্দ্রে ভোট হয়। এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। নৌকা প্রতীকে তিনি চার লাখ ১০ ভোট পেয়েছেন। অপরদিকে বিএনপির মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার পেয়েছেন এক লাখ ৯৭ হাজার ৬১১ ভোট।