চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ১৭ নভেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

খালেদা জিয়াকে বিদেশ যেতে দেয়ার আহ্বান

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
নভেম্বর ১৭, ২০২১ ৯:৫২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী অসুস্থ বেগম খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে শত নাগরিক জাতীয় কমিটি এবং ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব)। গতকাল পৃথক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানিয়েছে সংগঠন দু’টির শীর্ষ নেতারা।
শত নাগরিক জাতীয় কমিটি : মানবিক কারণে বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে যেতে দেয়ার আহ্বান জানিয়ে শত নাগরিক কমিটির বিবৃতিতে বলা হয়- দেশের সর্বজন শ্রদ্ধেয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সাবেক প্রধানমন্ত্রী, বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ। তার অবস্থা এখন সঙ্কটাপন্ন। এ অবস্থায় সরকারের কাছে আমাদের সনির্বন্ধ অনুরোধ, সব রকম প্রতিহিংসাপরায়ণতা, সঙ্কীর্ণ দল ও ব্যক্তি স্বার্থ পরিহার করে সম্পূর্ণ মানবিক কারণে জনগণের প্রিয় নেত্রীকে যত দ্রুত সম্ভব, অত্যাধুনিক চিকিৎসা নেয়ার জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দিন। যেকোনো ধরনের বিলম্ব ও অজুহাত বড় বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে বলে আমাদের আশঙ্কা, যা কারো জন্যই ভালো বার্তা বহন করবে না। আমরা প্রত্যাশা করি, সরকারের মধ্যে কল্যাণ ও মঙ্গলবোধ জেগে উঠবে। সত্যিকারের দায়িত্বশীলতার সাথে শুভচেতনার পরিচয় দিয়ে সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ যাত্রার ব্যবস্থা নিবে।

শত নাগরিক জাতীয় কমিটির পক্ষে বিবৃতিদাতাদের অন্যতম হলেন- অধ্যাপক ড. আনোয়ারউল্লাহ চৌধুরী, ড. এস এম এ ফায়েজ, ড. মাহবুব উল্লাহ, ড. জেড এন তাহমিদা বেগম, ডা: আবদুল কুদ্দুস, অধ্যাপক ডা: ফরহাদ হালিম ডোনার, ড. এ বি এম ওবায়দুল ইসলাম, ড. কামরুল আহসান, ড. গোলাম হাফিজ কেনেডী প্রমুখ।
ড্যাব : এ দিকে ড্যাবের সভাপতি অধ্যাপক ডা: হারুন আল রশিদ ও মহাসচিব অধ্যাপক ডা: আবদুস সালাম এক বিবৃতিতে বলেন, তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ডায়াবেটিস, উচ্চরক্তচাপ, আর্থ্রাইটিস, লিভার, হার্ট ও কিডনিজনিত রোগে এবং করোনা-পরবর্তী বিভিন্ন জটিলতায় রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন আছেন। এমতাবস্থায় আমরা বেগম খালেদা জিয়ার আশু রোগমুক্তি ও সুস্থ দীর্ঘায়ু কামনা করছি। সেই সাথে মানবাধিকার ও মানবিক দৃষ্টিকোণ বিবেচনাপূর্বক অবিলম্বে তার বিদেশে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি। অন্যথায় যেকোনো পরিস্থিতির জন্য সরকারকেই দায়দায়িত্ব বহন করতে হবে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।