কোরবানি ঈদ উপলক্ষে জমে উঠেছে চুয়াডাঙ্গার ডুগডগি পশুহাট

514

20170807_135441

ওয়াসিম রয়েল: সারা বিশ্বের মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসবের মধ্যে বড় উৎসব হিসাবে পরিচিত বছরের দুইটা ঈদ। একটা ঈদুল ফিতর ও একটা ঈদুল আজহা। সাধারনত মানুষ ঈদুল আজহা বলতে কোরবানির ঈদকে বুঝে থাকে। কোরবানির ঈদে মানুষ ব্যস্ত থাকে কোরবানির পশু কেনা নিয়ে। কোরবানি ঈদের এই ধর্মীয় ও প্রচলিত নিয়মানুসারে আগাম কোরবানির পশু কেনার জন্য মানুষ ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। গত সোমবার কোরবানির ঈদ উপলক্ষে দামুড়হুদা উপজেলার ডুগডুগি পশুহাটে ব্যাপক গরু ও ছাগলের আমদানি দেখা গেছে। কিন্তু গরু-ছাগলের আমদানী দেখা গেলেও গরুর হাটে সাধারন ক্রেতাদের ভিড় অনেক কম দেখা গেছে। তবে ব্যাপারীর ভিড় অনেক বেশি লক্ষ করা যায়।
ব্যাপারী নুরুল ইসলাম বলেন, আমরা একসাথে ৬ জন লোক আছি, সারা দিন ডুগডুগি হাটে গরু কিনবো এবং দেশের বিভিন্ন এলাকা যেখানে কোরবানীর পশুর দাম বেশি সে সকল পশুহাটে বিক্রি করবো। ডুগডুগি পশু হাটের মহিদুল ইসলাম নামের আরেকজন গরুর ব্যাপারী বলেন আমরা বেনাপোল থেকে গরু নিয়ে আসি এবং ডুগডুগি পশু হাটে বিক্রি করি তবে এ বছর এখন পর্যন্ত কোরবানী দেওয়ার জন্য পশু কিনতে খুব কম মানুষই আসছে। বর্তমানে বাছুর গরুর খুব বেশি চাহিদা বলে তিনি জানায়। বেশ কয়েকজন সাধারন ক্রেতা ও ব্যাপারী বলেন এখনো পর্যন্ত গরুর বাজার আগের মতোই স্থিতিশীল রয়েছে আগামী হাটে গরুর দাম বাড়বে না কমবে তা বলা যাচ্ছে না। একই সাথে ছাগলের হাটেও দেখা যায় অনেক জমজমাট। কিন্তু ছাগলের হাটে সাধারন ক্রেতার ভিড় বেশি দেখা যায়। কারন ছাগল অনেকের বাড়িতে রাখার সমস্যা নেই বলে আগে ভাগেই কিনে রাখছে। তবে ছাগলের বাজার একটু বেশি বলে জানায় কয়েকজন ক্রেতা।