চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ৩০ জুন ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কালীগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের কাণ্ড : রাতের আধারে আবাদি জমিতে খাল খনন

হাজারো একর জমির ফসল নষ্ট, কৃষকরা ক্ষতিগ্রস্ত!
সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুন ৩০, ২০২২ ৬:৫২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ঝিনাইদহ অফিস: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার জটারপাড়া গ্রামে কৃষি জমিতে জোরপূর্বক খাল খনন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। কালীগঞ্জের রায়গ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী হোসেন অপু জোর করে আবাদি জমির ওপর দিয়ে নতুন একটি খাল খনন করছেন। এ ঘটনায় এলাকার কৃষকদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। চেয়ারম্যানের পেশী শক্তির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা প্রতিবাদ জানাতে সাহস পাচ্ছে না। তবে তারা কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

তথ্য নিয়ে জানা গেছে, জমির মালিকদের সাথে কোনো রকম আলাপ-আলোচনা ও সম্মতি ছাড়াই মালিকানা জমিতে রাতের আঁধারে খাল খনন শুরু করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান আলী হোসেন অপু। জটারপাড়া গ্রামের আতিয়ার রহমান আতি মণ্ডল, আব্দুস সাত্তার মণ্ডল, আবু বাক্কার বিশ^াস, ইসলাম মোল্লা ও রফিউদ্দীন বিশ^াসের জমিতে জোরপূর্বক গত সোমবার মধ্যরাত থেকে খাল খনন শুরু করে। এসময় চেয়ারম্যান আলী হোসেন অপু সেখানে উপস্থিত ছিলেন। চেয়ারম্যানকে খাল খনন করতে বাঁধা দিলে তিনি জোরপূর্বক ভেকু মেশিন দিয়ে খাল খনন করতে থাকেন। বিষয়টি রাতেই স্থানীয় প্রশাসনকে জানানো হয়। পরে পুলিশ আসলে মাঠেই ভেকু মেশিন রেখে পালিয়ে যান চেয়ারম্যান ও তার লোকজন।

তোফাজ্জেল হোসেন নামে এক কৃষক জানান, গত সোমবার দিবাগত রাত একটার দিকে ভেকু মেশিনের শব্দ শুনতে পান তিনি। এসময় তিনি মাঠে গিয়ে দেখতে পান মালিকানা জমিতে খাল খনন করা হচ্ছে। চেয়ারম্যান নিজে দাঁড়িয়ে ছিলেন সে সময়। খাল খনন করতে বাঁধা দিলেও তিনি শোনেননি। শাহাদৎ বিশ^াস নামের আরেক কৃষক জানান, তাঁদের জমির আশেপাশে কোনো খাস জমি নেই। চেয়ারম্যান জোরপূর্বকভাবে খাল খনন করছেন। এতে অনেক কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। খাল খনন করলে যেখানে কৃষকদের উপকৃত হওয়ার কথা, সেখানে অপরিকল্পিত খাল কৃষকদের সর্বনাশ ডেকে আনছে। এই খাল খননের ফলে এলাকার হাজার হাজার একর কৃষি জমি ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

বিষয়টি নিয়ে রায়গ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী হোসেন অপুর মোবাইলে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সাদিয়া জেরিন জানান, এবিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। অভিযোগ পাওয়ার পর খাল খনন বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।