কার্পাসডাঙ্গায় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারপিট!

282

কার্পাসডাঙ্গা প্রতিবেদক: দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের বাঘাডাঙ্গা গ্রামের খ্রিষ্টানপাড়ার লোকাস মন্ডলের ছেলে মুকুলের বিরুদ্ধে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী, স্ত্রীর বোন ও বোনের স্বামীকে বেধড়ক মারপিট করে আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, মাস দু’য়েক পূর্বে কার্পাসডাঙ্গা গ্রামের মিশন পাড়ার বিনজাবিনের নাবালিকা মেয়ে রুমি মন্ডলকে (১৩) বাঘাডাঙ্গার লোকাস মন্ডলের ছেলে মুকুল বিয়ে করে। গতকাল শুক্রবার সকালে রুমির বোন সুমি মন্ডল ও তার স্বামী জাহিদুল রুমিকে দেখতে আসে। এময় সুমি ও তার স্বামী রুমিকে নির্যাতনের কারণ জানতে চাইলে মুকুল ও তার বাড়ির লোকজন রুমি তার বোন সুমি ও তার স্বামী জাহিদুলকে বেধড়ক মারপিট করে বাড়িতে আটকে রাখে। খবর পেয়ে কার্পাসডাঙ্গা পুলিশ ফাঁড়ির সহকারি উপপরিদর্শক আবুল কাশেম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে ও মুকুলকে দামুড়হুদা মডেল থানায় নিয়ে যায়। এ বিষয়ে কার্পাসডাঙ্গা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপপরিদর্শক আসাদুর রহমান আসাদ জানান, মেয়ের পরিবারের পক্ষ থেকে কোন মামলা না করায় ও মেয়েটি তার স্বামীর বাড়ি যেতে অস্বীকৃতি জানালে, মেয়েটিকে তার ভাইয়ের জিম্মায় ও মুকুলকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। পরবর্তীতে মেয়ের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা হলে মুকুলের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।