চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ২৭ নভেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কার্পাসডাঙ্গায় ইস্পাহানি এগ্রো লিমিটেড কোম্পানীর বিরুদ্ধে চাষীদের অভিযোগ হাইব্রীড ফুলকপি চাষ করে কৃষকরা সর্বশান্ত : জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ২৭, ২০১৬ ৩:৩৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

IMG_20161126_100214

কার্পাসডাঙ্গা অফিস: দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গায় ইস্পাহানী এগ্রো কোম্পানীর মার্ভেলাস সিএফ৪৫ হাইব্রীড ফুলকপি চাষ করে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন কার্পাসডাঙ্গার বেশ কয়েকজন কৃষক। ক্ষতিগ্রস্থ কপি চাষকৃত কৃষক কার্পাসডাঙ্গার ফকির মোহাম্মদ ২বিঘা ১০কাঠা জমি, আতিয়ার ২বিঘা জমি, লিটন পিতা গ্যাব্রিয়েল ২বিঘা ১০কাঠা জমি, প্রান্তোষ ১বিঘা ১০কাঠা জমি, আরিফ পিতা আবদুস সোবহান ২বিঘা জমি, পলাশ ১বিঘা ১০কাঠা জমি, আসান পিতা ১বিঘা ১০ কাঠা জমি, কলম ১০কাঠা জমি, মাহমুদ আলী পিতা মোজাম ১বিঘা ১০কাঠা জমি ইস্পাহানী এগ্রো লিমিটেডের মার্ভেলাস সিএফ৪৫ হাইব্রীড ফুলকপি হোগলার মাঠ, চারা বাগান মাঠসহ ফকিরাখালে মাঠে চাষাবাদ করেন। জানা গেছে, আনুমানিক মাস তিনেক পূর্বে খালিশপুর এলাকার ফুলকপি ব্যবসায়ী মশিউরের মাধ্যমে ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর থানার ১নং এসবিকে ইউনিয়নের বর্জাপুর গ্রামের মিজান বীজ ভান্ডার থেকে তাঁর প্রতিশ্রুতিতে বীজ কিনে কৃষকরা। বিঘা প্রতি ১৫হাজার টাকা করে খরচ হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে, কার্পাসডাঙ্গা এলাকায় আবাদকৃত অন্যজাতের ফুলকপির বাম্পার ফলন হলেও শুধুমাত্র ইস্পাহানী  এগ্রো লিমিটেডের মার্ভেলাস সিএফ৪৫ হাইব্রীড চাষকৃত ফুলকপির গাছ হয়েছে কিন্তু ফুল ধরেনি কিছু কিছু ফুল ধরলেও পুরো সবুজ ও সমকৃত অবিক্রিযোগ্য। বর্তমানে একপি চাষকৃত চাষীদের মাথায় হাত। চাষীরা অভিযোগ করে বলেন কোম্পানীর লোক চারা বেলায় জমিতে এসে কোম্পানীর সাইনবোর্ড মারাসহ খোঁজখবর নেন। তবে কপি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ফোন দিয়ে জানালে তাঁর পর থেকে আর ফোন ধরেন।আমরা ক্ষতিপুরন চাই। ক্ষতিপুরনের দাবী জানিয়ে জেলা প্রশাসকের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে ক্ষতিগ্রস্থ চাষীরা। এবিষয় জানতে মিজান বীজ ভান্ডারের মালিকের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তা সম্ভব হয়নি

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।