করোনার এই ক্রান্তিকালে কেউ না খেয়ে থাকবে না

17

জীবননগরে সিএনজি-ইজিবাইক চালকদের মধ্যে খাদ্য-সামগ্রী বিতরণকালে এমপি টগর
জীবননগর অফিস:
জীবননগর উপজেলার পাঁচ শতাধিক শ্রমিকের মধ্যে খাদ্য-সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুর ১২টায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে জীবননগর উপজেলা পরিষদের মিলনায়তনে এ খাদ্য-সামগ্রী বিতরণ করা হয়। চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ খাদ্য-সামগ্রী বিতরণ করেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি টগর বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার যেকোনো দুর্যোগে মানুষের পাশে ছিল। করোনার শুরু থেকেই মাঠে আছে। যতদিন করোনা থাকবে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা মাঠে থাকবে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তবে রুপ দিয়েছেন এবং দেশের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে রাত-দিন অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। মহামারি করোনাকালে সারা বিশ্ব যখন হিমশিম খাচ্ছে, সেই সময়ে ও বাংলাদেশ শক্ত অবস্থানে আছে।
এমপি টগর আরও বলেন, করোনার এই ক্রান্তিকালে কেউ না খেয়ে থাকবে না। সেই ব্যবস্থা সরকারের আছে। আপনারা শুধু দয়া করে সরকারের নির্দেশনা মেনে চলবেন। আমরা সরকারিভাবে ত্রাণ তহবিল থেকে যতদূর সম্ভব অসহায় মানুষের জন্য সহযোগিতা করে চলেছি। জরুরি সেবার মাধ্যমে খাদ্য সহায়তা প্রদান ছাড়াও খুব দ্রুত করোনা টিকা নিশ্চিত করতে চেষ্টা করছে সরকার।
এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজি হাফিজুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আরিফুল ইসলাম, পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, জীবননগর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তজা, সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, জীবননগর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবু মো. আব্দুল লতিফ অমল, জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েসা সুলতানা লাকী, মনোহরপুর ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন খান, জীবননগর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।