চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ১ আগস্ট ২০১৭

কফির দোকানি শ্রদ্ধা কাপুর

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ১, ২০১৭ ৭:০৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বিনোদন ডেস্ক: ২০০৫ সালে বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছিলেন শ্রদ্ধা কাপুর। লিবারেল আর্টসে পড়াশোনার জন্য সেখানে গিয়েছিলেন তিনি। নায়িকা জানিয়েছেন, অন্য ছাত্রছাত্রীদের মতো তিনিও পার্ট টাইম চাকরির খোঁজ করা শুরু করেন। তবে স্মার্ট হওয়ায় চাকরি পেতে বেশি সমস্যা হয়নি তার। ক্যাম্পাসেরই কফির দোকানে চাকরি জুটে গেল শ্রদ্ধার। প্রতিদিন সকালেই তাকে জানিয়ে দেওয়া হতো কী কাজ করতে হবে। হয় ক্যাশ কাউন্টারে বসতেন, নয়তো গরম কফি অথবা হট চকলেট ঢেলে নেড়ে মেশাতেন। শ্রদ্ধা খুব ভালোবাসতেন তার কাজগুলো। নায়িকা আরও জানান, তার কফি শপের পাশেই ছিল একটি স্যান্ডউইচের দোকান। এলাকার সেরা খাবার বিক্রি করতো তারা। এটা দেখে মাঝে মাঝে শ্রদ্ধা আফসোস করে ভাবতেন, কেনো স্যান্ডউইচের দোকানে চাকরি হলো না তার। এরপর কফির দোকানের চাকরির মেয়াদ দেড় মাস হতেই শ্রদ্ধা স্যান্ডউইচের দোকানটিতে চাকরির আবেদন করেন এবং চাকরিটা পেয়ে যান। মজার বিষয় ছিলো, সেখানে দিন শেষে একটি স্যান্ডউইচ খাওয়া যেত একদম ফ্রি! আফসোসের স্বরে শ্রদ্ধা জানান, পড়াশোনায় জন্য স্যান্ডউইচের দোকানের চাকরিটা তাকে ছেড়ে দিতে হয় মাত্র ৭ মাস পর।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।