চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ২৪ নভেম্বর ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ওয়ার্ড বয়, স্বেচ্ছাসেবিকাসহ চিকিৎসক লাঞ্ছিত : দুজন আটক

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ২৪, ২০২০ ১০:৩৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসায় অবহেলার অভিযোগে রোগীর স্বজনদের হামলা
নিজস্ব প্রতিবেদক:
জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসায় অবহেলার অভিযোগে রোগীর স্বজনদের হামলায় ওয়ার্ড বয়, স্বেচ্ছাসেবিকাসহ চিকিৎসক লাঞ্ছিতের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে ওয়ার্ড বয় শিশির কুমার ঘোষের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জীবননগর থানার পুলিশ রোগীর দুই স্বজনকে আটক করেছে।
জানা গেছে, গতকাল রাত ১১টার দিকে জীবননগর উপজেলার হাসাদহ গ্রামের মৃত মাহাতাব আলীর ছেলে লিটন (৫০) হার্টের সমস্যা নিয়ে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। সেখানে তাঁর শ্বাসকষ্ট শুরু হলে চিকিৎসক তাঁকে অক্সিজেন দেন। কিছুক্ষণ পর অক্সিজেন ফুরিয়ে গেলে আনতে দেরি হওয়ায় রোগীর স্বজনেরা উত্তেজিত হয়ে পড়ে। এ সময় রোগীর স্বজনদের হামলায় চিকিৎসক ডা. মেহেদী, ওয়ার্ড বয় শিশির কুমার ঘোষ ও স্বেচ্ছাসেবিকা রাণী আহত হন। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওই রোগীকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে রেফার্ড করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন লিটনের স্বজনদের কাছে জানতে চাইলে তাঁরা বলেন, ‘আমরা এ বিষয়ে কিছুই জানি না। জীবননগর থেকে লিটনকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে রেফার্ড করেছে, শুধু এটাই জানি।’
জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. মাহমুদ বিন হেদায়েত বলেন, ‘সোমবার রাতে ওই রোগীকে ভর্তির পর শ্বাসকষ্ট শুরু হলে অক্সিজেন দেওয়া হয়। এ সময় রোগীর স্বজনেরা বলেন অক্সিজেন যাচ্ছে না। এ বিষয় নিয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থাকা চিকিৎসক, ওয়ার্ড বয় ও স্বেচ্ছাসেবিকার সঙ্গে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আমার ওয়ার্ড বয়, স্বেচ্ছাসেবিকা ও মেডিকেল অফিসারকে লাঞ্ছিত করে রোগীর স্বজনেরা। এর মধ্যে ওয়ার্ড বয় শিশির কুমার ঘোষের মাথায় আঘাত লাগলে বমি হওয়ায় তাঁকে দ্রুত সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’ তিনি আরও বলেন, ঘটনার পরই প্রশাসন, সিভিল সার্জন ও উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।
এদিকে, খবর পেয়ে জীবননগর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করে এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুজনকে আটক করে। জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে রোগীর দুই স্বজনকে আটক করে থানায় নেওয়া হয়েছে। এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।
এদিকে, চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাহবুবুর রহমান বলেন, শিশির কুমার ঘোষের অবস্থা শঙ্কামুক্ত নয়। মাথায় আঘাত লেগেছে, বমিও করছে। প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রেফার্ড করা হবে।

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।