ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্য গণতন্ত্রের জন্য হুমকিস্বরুপ: দুদু

318

image-38396

সমীকরণ ডেস্ক: সহায়ক সরকার নয়, দলীয় সরকারের অধীনেই আগামী নির্বাচন হবে বলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের যে বক্তব্য দিয়েছেন তা গণতন্ত্রের জন্য হুমকি বলে মনে করছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু। গত মঙ্গলবার রাতে চুয়াডাঙ্গার নিজ বাসভবনে জেলা বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে আলোচনা শেষে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ কথা বলেন। গত সোমবার ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছিলেন, ‘আমরা অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন চাই। সেই নির্বাচন সহায়ক সরকারের অধীনেই হতে হবে। খালেদার এমন বক্তব্যের জবাবে মঙ্গলবার কুমিল্লায় গৌরীপুর-গোমতী সেতু পরিদর্শনকালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে দলীয় সরকার অধীনেই। তবে সরকার শুধু সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।
ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের জবাবে শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ‘এই ওবায়দুল কাদেরই তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে তৎকালীন সরকারের (বিএনপি) রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের গ্যাস, বিদ্যুৎ ও পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার কথা বলেছিলেন। এখন ক্ষমতায় বসে ভিন্ন সুর দিচ্ছেন। বিএনপির এই ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, ‘বর্তমান প্রধানমন্ত্রী একটি অনির্বাচিত সরকারের প্রধানমন্ত্রী। একইসঙ্গে তিনি আওয়ামী লীগের সভানেত্রী। তার অধীনে নির্বাচন হলে সেই নির্বাচন কোনোভাবেই অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে না। শেখ হাসিনাকে বাদ দিয়ে সব দলের সঙ্গে আলাপ আলোচনার মাধ্যমেই একটি সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে পারে। ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের প্রসঙ্গ তুলে দুদু বলেন, ‘৫ জানুয়ারির মতো নির্বাচনের পায়তাঁরা করলে আওয়ামী লীগ ভুল করবে। বাংলার জনগণ এবার তার জবাব দেবে। ৫ জানুয়ারির মত নির্বাচন বিএনপি আর বাংলার মাটিতে হতে দেবে না। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ওয়াহেদুজ্জামান বুলা, কৃষকদলের কেন্দ্রীয় সহ-দপ্তর সম্পাদক এস কে সাদী এবং জেলা জাসাসের সভাপতি শহিদুল ইসলামসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা।