এবার মিষ্টির বাজারেও ‘খেলা হবে’

23

বিস্ময় প্রতিবেদন:
এবারের বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের সবচেয়ে হিট স্লোগান তৃণমূলের ‘খেলা হবে’। তারপরেই বিজেপির ‘জয় শ্রীরাম’। গানে গানে, রিংটোনে সবখানেই এখন এই দুই স্লোগান। রাজনীতির চৌকাঠ পেরিয়ে সোজা ঢুকে পড়েছে মিষ্টির বাজারেও। ভোটের বাজারের এই পাল্টাপাল্টি স্লোগানকে পুঁজি করেই রমরমা ব্যবসা করছেন পশ্চিমবঙ্গের মিষ্টি ব্যবসায়ীরা। কলকাতা, বর্ধমান, হুগলি, চব্বিশ পরগনা, উত্তরবঙ্গের মহর গ্রামের সব দোকানেই এখন ‘খেলা হবে’-‘জয় শ্রীরাম’ মিষ্টি-সন্দেশের সয়লাব। খবর নিউজি এইটিনের। কলকাতার প্রসিদ্ধ মিষ্টির দোকান বলরাম মল্লিক ও রাধারমণ মল্লিকের শোকেসে এবার সেজেছে ‘খেলা হবে’-‘জয় শ্রীরাম’ সন্দেশে। রাজনীতির মাঠে পরস্পর প্রতিপক্ষ হলেও শোকেসে তারা পাশাপাশি। সাদা-সবুজ মেজাজে ‘খেলা হবে’ সন্দেশ। আর ‘জয় শ্রীরাম’ মিষ্টির চেহারা সাদা-কমলা। এখানেই শেষ নয়, ভোট উৎসবের কথা মাথায় রেখে বানানো হয়েছে সব দলের প্রতীকের সাজে সাজানো মিষ্টি। সেগুলো মূলত সন্দেশ। সরাসরি রাজনীতির গন্ধ লাগা এই সন্দেশের কোনোটিতে থাকছে মমতা ব্যানার্জির মুখ। কোনোটিতে হাসিমুখে হাজির হচ্ছেন নরেন্দ্র মোদি। হুগলির বিখ্যাত ফেলু মোদকে ইতিমধ্যেই সুপার হিট ‘খেলা হবে’ সন্দেশ। সেখানে চকলেট, স্ট্রবেরি ও ম্যাংগো স্বাদের সঙ্গে মিলেছে সাদা নরম সন্দেশ। একএকটির দাম ৪০ থেকে ১০০ টাকা। চাহিদাও অনেক। লাইন দরে কিনছেন খদ্দেররা। এখানকার কর্ণধার অমিতাভ দে’র কথায়, আমরা দারুণ সাড়া পাচ্ছি এই সন্দেশে। খেলা হবে কথাটি এখন পুরোদস্তুর রাজনৈতিক। তাতে মেশানো আছে উচ্ছ্বাস, মজা। নতুন প্রজন্ম তাই এই সন্দেশে মজেছে।