চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ১৫ নভেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

এবার দেশও ছাড়লেন জাপানের সাবেক রাজকন্যা

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ১৫, ২০২১ ৯:০৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বিশ্ব প্রতিবেদন:
সহপাঠীকে বিয়ে করে রাজপ্রাসাদ ছেড়েছেন আগেই। বিয়েটাও হয়েছিল বেশ সাদামাটা। ছিল না কোনো রাজকীয়তা। এবার স্বামীর হাত ধরে দেশও ছাড়ছেন তিনি। জাপানের সাবেক রাজকন্যা মাকো রোববার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের উদ্দেশে রওয়ানা করেন। গত মাসে এক অনাঢ়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দীর্ঘদিনের প্রেমিক কেই কোমুরোকে বিয়ে করেন মাকো। এর মধ্য দিয়ে তিনি জাপানের রাজপরিবার থেকে খারিজ হয়ে যান। তারা যে জাপান থেকে নিউইয়র্কে চলে যেতে পারেন, সে আভাস আগেই পাওয়া গিয়েছিল। মাকোর স্বামী কোমুরো থাকেন যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে আইন পেশার সঙ্গে যুক্ত তিনি। কলেজ জীবনে রাজকন্যা মাকোর সহপাঠি ছিলেন কোমুরো। সেখান থেকেই বন্ধুত্ব ও প্রেম। ২০১৭ সালে তাদের বাগদান হয়। পরে কোমুরো আইন বিষয়ে পড়ালেখার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান। জাপানের রাজপরিবারের নিয়ম অনুযায়ী, রাজকুমারীরা সাধারণ কোনো নাগরিককে বিয়ে করলে তিনি আর রাজপরিবারের সদস্য থাকেন না। কোমুরোকে বিয়ে করে রাজকন্যা মাকো সে কাজটিই করেছেন। এ কারণে রাজপরিবারের সদস্যরা যেসব সুবিধা ভোগ করেন, তিনি সেগুলো আর পাচ্ছেন না। এ ছাড়া রাজপরিবারের কোনো সম্পদেও তার অধিকার থাকছে না। বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, জাপানে রাজকুমারীদের জন্য এ নিয়ম থাকলেও রাজকুমারদের ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম। তারা সাধারণ কোনো নারীকে বিয়ে করতে পারবেন। সাধারণত রাজপরিবারের বিয়েতে যেসব আয়োজন দেখা যায়, তার কোনোটাই ছিল না মাকোর বিয়েতে। একেবারে সাদামাটাভাবে বিয়ে হয়েছে তাদের। মাকোই জাপানের রাজপরিবারের প্রথম কোনো নারী সদস্য যিনি এ পদক্ষেপ নিলেন। এ বিয়েকে প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মরকেলের বিয়ের সঙ্গে তুলনা করা হয়। তাদেরকে জাপানের ‘হ্যার-মরগান’ও বলা হচ্ছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।