চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ১৭ জুলাই ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

এবার দাম বাড়ানো হলো ৫৩ ওষুধের

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুলাই ১৭, ২০২২ ১০:০২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন: প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবায় ব্যবহৃত ২০টি জেনেরিকের ৫৩টি ব্র্যান্ডের ওষুধের দাম বাড়ানো হয়েছে। নতুন নির্ধারিত মূল্য অনুযায়ী প্যারাসিটামলের ৫০০ এমজির প্রতিটি ট্যাবলেট ৭০ পয়সা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ১ টাকা ২০ পয়সা। কিছু ওষুধের দাম ১০০% বেড়েছে। নিয়ম মেনেই ওষুধের দাম বাড়ানো হয়েছে বলে দাবি ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের। ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের পরিচালক মো. আইয়ুব হোসেন বলেন, প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবার জন্য তালিকাভুক্ত ১১৭টি ওষুধের মূল্য নির্ধারণ করতে পারে সরকার। ওষুধ উৎপাদনে ব্যবহৃত কাঁচামাল, প্যাকেজিং ম্যাটেরিয়াল, পরিবহন ও সরবরাহ ব্যয়সহ নানা কারণে ওষুধের খরচ বেড়েছে। এসব কারণে ওষুধের দাম বাড়ানো হয়েছে। মো. আইয়ুব হোসেন আরও বলেন, ওষুধের দাম আচমকা বাড়ানো হয়েছে বিষয়টা এমন নয়। প্রাইজ পলিসি অনুযায়ী অনেকদিন ধরে দাম আপডেট করা হয়নি। ওষুধ কোম্পানিগুলোর দাম বাড়ানোর আবেদন ছিল, বাজারে কিছু প্রডাক্টের প্রাপ্যতা কম ছিল তাই এগুলো সহজপ্রাপ্য করতে দাম পুনর্র্নিধারণ করা ছাড়া উপায় নেই। সবকিছু পর্যালোচনা করেই ঔষধ প্রশাসনের দাম নিয়ন্ত্রণ কমিটির পরামর্শক্রমে সরকার এ ওষুধগুলোর দাম আপডেট করেছে। নতুন দাম কার্যকর হয়েছে বলে জানান তিনি। এখন ওষুধ কোম্পানিগুলো কস্টিং অনুযায়ী আবেদন করে দাম নির্ধারণ করে নিতে পারবে।

গত ৩০ জুন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত ওষুধের মূল্য নির্ধারণ কমিটির ৫৮তম সভায় এসব ওষুধের পুনর্র্নিধারিত দাম অনুমোদন করা হয়। এর আগে ২০১৫ সালে কয়েকটি ওষুধের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছিল। প্যারাসিটামলের ১০টি জেনেরিকের দাম বেড়েছে। মেট্রোনিডাজল ছয়টি জেনেরিকের দাম বেড়েছে। মেট্রোনিডাজল ২০০ এমজি ট্যাবলেট কোটেডের আগে দাম ছিল ৬০ পয়সা, যা বর্তমানে বেড়ে হয়েছে ১ টাকা। অ্যামোক্সিসিলিন বিপি ৫০০ এমজি ইনজেকশনের আগের দাম ছিল ২৪ টাকা ১০ পয়সা, বেড়ে হয়েছে ৫৫ টাকা।

এ ছাড়া জাইলোমেট্রোজালিন, প্রোকলেপেরাজিন, ডায়াজেপাম, মিথাইলডোপা, ফ্রুসেমাইড, ফেনোবারাবিটাল, ওআরএস, লিডোকেইন, ফলিক এডিস, ক্লোরফেনিরামিন, বেনজাথিন বেনজিলপেনিসিলিন, অ্যাসপিরিন ফেনোক্সিমিথাইল পেনিসিলিন, নরগেস্টেরেল, ফেরোস এর দাম ৫০% থেকে ১০০% বেড়েছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।