চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ১৪ আগস্ট ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

এবার চুয়াডাঙ্গা পুলিশ পার্কে অভিযান চালালেন পুলিশ সুপার নিজেই অভিভাবকদের সজাগ দৃষ্টি রাখার আহ্বান

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ১৪, ২০১৭ ৫:১১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক: জেলা প্রশাসন কর্তৃক নির্দেশনা অমান্য করে স্কুল, কলেজ ফাঁকি দিয়ে পার্কে সময় কাটানোর অভিযোগে ২৫-৩০জন শিক্ষার্থীকে আটক করে পুলিশ। পরে সদর থানায় রেখে মুচলেকা দিয়ে অভিভাবকদের জিম্মায় তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।
গতকাল রবিবার দুপুরে পুলিশ সুপার নিজাম উদ্দীনের নেতৃত্বে এক অভিযানে পুলিশ সুপারের কার্যালয় সংলগ্ন পুলিশ পার্ক থেকে তাদের আটক করা হয়। তবে শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যতের কথা বিবেচনা করে তাদের নাম, ঠিকানা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কথা প্রকাশ করেনি পুলিশ।
পুলিশের বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি জেলা প্রশাসন কর্তৃক পার্ক পরিচালনার নির্দেশনা উপেক্ষা করে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ছেলে মেয়েরা ক্লাস ফাঁকি দিয়ে পার্কে সময় কাটাচ্ছে। বিষয়টি জানার পর চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার নিজাম উদ্দীন তাঁর নিজ কার্যালয়ের পার্শ্ববর্তী পুলিশ পার্কে অভিযান চালানোর জন্য স্বশরীরে পার্কে যান। এ সময় জোড়ায় জোড়ায় বসে থাকা ডজন খানেক জুটি আটক করা হয়। এদের অনেকেই স্কুল-কলেজ ড্রেসে ছিল আবার কয়েকজনের ব্যাগের ভেতর স্কুল-কলেজের নির্দিষ্ট পোশাকও পাওয়া গেছে। ড্রেস পাল্টে তারা সাধারণ পোশাকে পার্কে সময় কাটাচ্ছিল। আটকের পর তাদেরকে উপদেশমূলক নির্দেশনা দেন পুলিশ সুপার। তিনি বলেন, ‘আজকের শিক্ষার্থী আগামী দিনের সম্পদ। তোমরা যদি স্কুল/কলেজে না গিয়ে পার্কে বসে সময় কাটাও তবে তো ভবিষ্যৎ অন্ধকার। বাবা-মা কত আশা নিয়ে তোমাদের পড়াশোনা করতে বাড়ির বাহিরে পাঠায়, আর তোমরা পার্কে বসে বন্ধুর সাথে আড্ডা দাও, এটা ঠিক নয়।’
এ ভাবে এক সময় গড়ে ওঠে গভীর সম্পর্ক, আর সেই সম্পর্ক দৈহিক সম্পর্কে রুপ নিয়ে একটি সুন্দর/সোনালী ভবিষ্যৎকে অন্ধকার জগতের দিকে নিয়ে যায়। এ কথা সমাজের মানুষের মুখে মুখে ছড়িয়ে পড়লে ওই ছেলে/মেয়ে নষ্টা/চরিত্রহীনা উপাধী পায়। এক সময় সে নেশায় আসক্ত হয়ে পড়ে। নেশার টাকা জোগাড় করতে বেছে নেয় সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, চুরি, ডাকাতি, ছিনতাইয়ের মত ভয়ঙ্কর পথ। অকালে ঝরে পড়ে একটি সুন্দর জীবন।
পুলিশ সুপার আরো বলেন, এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে। যাতে শিক্ষার্থীরা স্কুল-কলেজ ফাঁকি দিয়ে এ ধরণের কাজ করতে না পারে। একইসাথে তিনি অভিভাবকদের তাদের সন্তানদের ব্যাপারে সজাগ দৃষ্টি রাখার আহ্বান জানান।
উল্লেখ্য, এরআগে গত ৩ আগস্ট চুয়াডাঙ্গা ফেরীঘাট রোডের শিশুস্বর্গ পার্কে আকস্মিক অভিযান চালান চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহমেদ। ওইদিন আপত্তিকর অবস্থায় অর্ধশতাধিক স্কুল/কলেজগামী শিক্ষার্থীকে আটক করে ছবি তুলে পরিচয় লিপিবদ্ধ করে মৌখিক মুচলেকায় মুক্তি দেওয়া হয়। এ ধরণের কার্যকালাপের প্রশ্রয় দেওয়ার দায়ে ভ্রম্যমাণ আদালতে পার্ক কতৃপক্ষকে ১০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এদিকে গতকাল রবিবার জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় এ নিয়ে আলোচনা হওয়ার পরই পুলিশ সুপার এহেন প্রশংসনীয় উদ্যোগ নেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।