চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ১৭ জানুয়ারি ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

উন্নয়নমূলক কাজে কোনোভাবেই ওভারলেপিং হতে দেয়া যাবে না:জেলা প্রশাসক আমিনুল ইসলাম খান

চুয়াডাঙ্গা জেলা উন্নয়ন ও সমন্বয় কমিটির সভা
সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জানুয়ারি ১৭, ২০২২ ৫:৪৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদক:

চুয়াডাঙ্গার নবাগত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান জেলার উন্নয়ন ও সমন্বয় কমিটির প্রথম বৈঠকে সকলকে সম্মিলিতভাবে কাজ করার পুনঃপুনঃ তাগিদ দিয়ে বলেছেন, জেলা এবং উপজেলা পর্যায়ের উন্নয়নমূলক কাজে কোনোভাবেই ওভারলেপিং মেনে নেয়া যাবে না। একই কাজ একাধিক দপ্তরের মাধ্যমে করা মানেই সরকারি অর্থ-তছরুপ। এটা কোনোভাবেই হতে দেয়া যাবে না। গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত উন্নয়ন ও সমন্বয় কমিটির সভার আগে সংক্ষিপ্ত আকারে পরিচিতি পর্বের আয়োজন করা হয়। উপস্থিত বিভিন্ন বিভাগীয় দপ্তরের কর্মকর্তাগণ তাদের পরিচয় দিয়ে নবাগত জেলা প্রশাসকের সাথে পরিচিত হন। সমন্বয় ও উন্নয়ন কমিটির সভায় নবাগত সিভিল সার্জন ডা. সাজ্জাৎ হাসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবু তারেক, জেলার ৪ উপজেলা চেয়ারম্যান, ৪ উপজেলার নির্বাহী কমর্কতা (ইউএনও), পৌরসভার মেয়র বা তাদের প্রতিনিধি হিসেবে প্যানেল মেয়রগণসহ জেলার প্রতিটি দপ্তরের শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সভার শুরুতেই জেলা মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের তরফ থেকে উপস্থিত সকলের মাঝে হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ করা হয়। নবাগত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিগত সভার বিভাগীয় সিদ্ধান্তসমূহ পর্যয়ক্রমে উপস্থাপন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরিন। সভায় চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার প্রতিটি মহল্লার বর্জ্য যথাযথভাবে অপসারণের পাশাপাশি সদর হাসপাতালের পরিষ্কার-পরিছন্নতার উপর গুরুত্বারোপ করে বলা হয়, চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল সড়কে একমুখী চলাচলের বিষয়টি যেমন নিশ্চিত করতে হবে, তেমনই প্রশস্তকরণেরও উদ্যোগ নিতে হবে। সদর হাসপাতালটি অনেক বড় স্থাপনা। অতীব জনগুরুত্বপূর্ণ। কোনোভাবেই ট্রাফিকজ্যাম রাখা যাবে না। দেশে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। চুয়াডাঙ্গায় করোনা সংক্রমণ রোধে সর্বাত্মক চেষ্টা চালাতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। শিক্ষার্থীদের টিকা প্রদানের বিষয়টিও শতভাগ করা জরুরি। এবিষয়ে সিভিল সার্জন অবশ্য বলেন, প্রথম পর্যায়ে ১২ থেকে ১৮ বছরের বয়সী ৯৩ হাজার ৫ শ ছাত্রছাত্রীর টিকাকরণের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়। নির্ধারিত সময়ে চুয়াডাঙ্গায় এটা পূর্ণ হয়েছে। অবাক হলেও সত্য যে, লক্ষ্য নির্ধারণের বাইরেও ১০ শতাংশ টিকাকরণ করা হয়েছে। এখনও টিকা নেয়ার জন্য ছাত্রছাত্রীরা ভিড় জমাচ্ছে। শিক্ষা বিভাগ আমাদের এবিষয়ে বিস্তারিত তথ্য দিলে ভবঘুরেসহ কওমী মাদরাসার ছাত্রদেরও টিকাকরণ করা হবে। এছাড়াও চুয়াডাঙ্গায় প্রাপ্ত বয়সীদের জন্য বুস্টারডোজ টিকা দেয়ার কাজ অব্যাহত রয়েছে।

            চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক জেলার প্রতিটি উপজেলার ওয়েবপোর্টালগুলো প্রতিদিন আপডেট করার তাগিদ দেন। বলেন, কোনো কাজ ঝুলিয়ে রাখা যাবে না। যারা সুগার সেস বৃত্তি পাওয়ার জন্য আবেন করেছে, তাদের টাকা দ্রুত প্রদানের ব্যবস্থা করতে হবে। জেলায় সরকারি কর্মকর্তাদের থাকার জন্য ৬ তলা ভবন ডরমেটরি নির্মাণের প্রস্তাব দিয়েছে সরকার। স্থান নির্ধারণসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ দ্রুত নেয়া হবে বলেও জানানো হয় সভায়। জেলার নদনদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন শক্তহাতে বন্ধ করতে হবে। সরকারি যেসব দপ্তরের বিদ্যুত বিল বকেয়া রয়েছে তা পরিশোধের বিশেষ উদ্যোগ নেয়ার পাশাপাশি বিদ্যুত অপচয় রোধে সকলকে বাড়তি সতর্ক থাকারও তাগিদ দেন নবাগত জেলা প্রশাসক। এছাড়াও জীবননগরের হাসাদহের একটি সড়ক দীর্ঘদিন ধরে খুড়ে রাখার পরও নির্মাণ কাজ সম্পন্ন না করায় ঠিকাদারকে তাগিদ দেয়ার কথা বলা হয়। তাগিদ দিয়েও কাজ নাহলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়টিও ভাবতে হবে বলে জানানো হয় সভায়। এছাড়াও উন্নয়ন ও সমন্বয় কমিটির সভায় জেলার বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করে জনকল্যাণে দ্রুত সম্পন্ন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

            উল্লেখ্য, উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভার পাশাপাশি জেলা প্রশাসকের সভাপতিত্বে নারী ও শিশু পাচার প্রতিরোধ কমিটি, জেলার কর্ণধার কমিটিসহ কয়েকটি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।