ইসলামে সংঘবদ্ধতার গুরুত্ব

270

ধর্ম ডেস্ক: আল্লাহ তায়ালার আনুগত্য এবং রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর দেখানো পদ্ধতিতে প্রকৃত শান্তি ও কল্যাণ নিহিত। আরব জাহিলিয়াতের মতো বর্তমান পৃথিবীর অশান্ত অবস্থা থেকে পরিত্রাণের একমাত্র পথ হচ্ছে, তরুণ মুহম্মদ (সা.)-এর দেখানো পদ্ধতিতে প্রতিটি জনপদে প্রতিজ্ঞাপরায়ণ, ন্যায়পরায়ণ, অন্যায়ের প্রতিবাদকারী, সত্যিকার জনহিতকারী এবং উন্নত মানসিক গুণাবলিসম্পন্ন লোকদের নিয়ে সামাজিক সংগঠন করা। যারা একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য সংঘ করবে। আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘তোমাদের মধ্যে এমন কিছু লোক থাকতেই হবে যারা (মানুষকে) কল্যাণের দিকে আহ্বান করবে। ভালো কাজের আদেশ দিবে এবং মন্দ কাজ থেকে নিষেধ করবে। যারা এই কাজ করবে তারাই সফল হবে’ (সূরা আল ইমরান : ১০৪)। রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘তোমাদের কেউ যখন মন্দ কাজ হতে দেখে, তা যেন সে হাত দ্বারা প্রতিরোধ করে, যদি এই ক্ষমতা সে না রাখে সে যেন মুখের মাধ্যমে তা প্রতিরোধ করে, আর যদি সে এই ক্ষমতাটুকুও না রাখে তবে যেন অন্তরের মাধ্যমে তা প্রতিরোধ করে। এটাই হলো দুর্বলতম ইমান’ (মুসলিম : ৪৯)।