চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ২৪ ডিসেম্বর ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ইসলামের দৃষ্টিতে আদর্শ নাগরিক

সমীকরণ প্রতিবেদন
ডিসেম্বর ২৪, ২০১৭ ১১:২০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ধর্ম ডেস্ক: ইসলাম একটি পূর্ণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা। শুধু ব্যক্তিগত জীবনেই নয়, রাষ্ট্রীয় ও নাগরিক জীবনের দায়িত্ব-কর্তব্য সম্পর্কেও ইসলাম সুস্পষ্ট নির্দেশনা দিয়েছে। একজন আদর্শ মুসলমান মানেই আদর্শ নাগরিক। ভালো নাগরিক হতে না পারলে ভালো মুসলমানও হওয়া সম্ভব নয়। যুগে যুগে আল্লাহর প্রিয় বান্দারা আদর্শ নাগরিক হিসেবেও খ্যাত ছিলেন। যিনি আল্লাহর প্রতি পূর্ণ আনুগত্য পোষণ করেন, রাষ্ট্রের প্রতিও তার আনুগত্য থাকতে হবে। রাষ্ট্রদ্রোহী কারো পক্ষে ¯্রষ্টার কৃপা পাওয়া অসম্ভব। রাষ্ট্রীয় আনুগত্যের মধ্য দিয়েই ¯্রষ্টার সন্ধান পাওয়া যায়। আমাদের প্রিয়নবী (সা.) ছিলেন একজন আদর্শ নাগরিক। নাগরিক হিসেবে তিনি দেশ ও জাতির প্রতি যে আনুগত্য, ভালোবাসা, সহমর্মিতাবোধ দেখিয়েছেন তা চিরদিন বিশ্বাসীদের জন্য আলোকদিশার কাজ করবে। যে দেশ থেকে তিনি অন্যায়ভাবে বিতাড়িত হয়েছেন, যাদের থেকে তিনি অসৌজন্যমূলক আচরণ পেয়েছেন সে দেশ ও মানুষের প্রতি তার ভালোবাসার কোনো কমতি ছিল না। তার প্রতি উৎসর্গিত সাহাবায়ে কেরামের অবস্থাও ছিল তাই। তারাও দেশ-জাতির জন্য ছিলেন পুরোপুরি নিবেদিত। ইসলামের দৃষ্টিতে একজন আদর্শ নাগরিক রাষ্ট্রের মূল্যবান সম্পদ। নাগরিকের অব্যাহত প্রচেষ্টা থাকবে দেশ ও জাতির কিভাবে উন্নতি করা যায়। নিজের সামর্থ্যরে সবটুকু দিয়ে হলেও দেশের জন্য, নিজ জাতির জন্য কিছু করার মানসিকতা থাকতে হবে। রাষ্ট্র তার নাগরিকের সুযোগ-সুবিধার বিষয়টি ভাববে, কিন্তু রাষ্ট্রের প্রতিটি নাগরিকের ভাবনা থাকবে কিভাবে দেশ ও জাতিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়। যে দেশের নাগরিক যত সভ্য ও সুশীল সে দেশ তত উন্নত ও অগ্রসর।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।