চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ৯ ডিসেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আলমডাঙ্গা রোয়াকুলীতে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে জেরে বিপত্তি বয়োবৃদ্ধকে লাঠিপেটা করে জমি দখল নিলো প্রতিপক্ষ!

সমীকরণ প্রতিবেদন
ডিসেম্বর ৯, ২০১৬ ১২:২৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

sdfsআলমডাঙ্গা অফিস: জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে জড়িয়ে লাঠিপেটায় বয়োবৃদ্ধ আব্দুর রহমানকে হাসপাতালে পাঠিয়ে জমির দখল নিয়েছে আলমডাঙ্গার রোয়াকুলী গ্রামের প্রতিপক্ষ একটি গ্রুপ। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে লাঠিসোটা নিয়ে প্রতিপক্ষরা বয়োবৃদ্ধ রহমানকে বেদম পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। আব্দুর রহমানকে হারদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। থানায় প্রতিপক্ষদের নামে মামলা হয়েছে। জানা গেছে, আলমডাঙ্গার রোয়াকুলী গ্রামের মৃত ওমেদ আলীর ছেলে আব্দুর রহমান তার নিঃসন্তান মামা মোকছেদ আলীর কাছে লালিতপালিত হয়ে বড় হন। মোকছেদ আলী তার ভাগ্নে আব্দুর রহমানকে নিজ মাঠে ৫৮ শতক ও মাদারহুদা মৌজায় ৩৬ শতক জমি লিখে দিয়ে যায়। আব্দুর রহমান সেই জমি প্রায় ৭৫ বছর ধরে ভোগ-দখল করে আসছেন। আবার আব্দুর রহমানের চার ছেলে ইলিয়াছ, মুকুল, আসাদুল ও আজাদ মোকছেদ আলীর স্ত্রী সোহাগীর কাছ থেকে ৯৯ শতক জমি ক্রয় করেন। কিন্তু সম্প্রতি আব্দুর রহমানের এসব জমির ভোগদখলে বড় বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় মৃত মোকছেদ আলীর অপর শরীকানরা। তারা ওইসব জমি ফেরৎ পেতে পেশিশক্তি ব্যবহার করে জবরদখল করার চেষ্টা করছে। এ নিয়ে আদালতে মামলা ও পাল্টা মামলাও দায়ের হয়েছে। এরইমধ্যে গতকাল সকাল ৭টার দিকে রোয়াকুলী গ্রামের নুর বক্সের ছেলে আতিয়ার, দাউদ আলীর ছেলে বাদল, আমজাদের ছেলে সালিহীন, আজিজুলের ছেলে জিনা, মৃত মেহের আলীর ছেলে সোনা ও আদমের ছেলে আজিজুলের নেতৃত্বে প্রায় জনাপঞ্চাশেক লোক লাঠিসোটা, রামদা, লোহার রড ও শাবল নিয়ে উল্লেখিত জমির দখল নিয়ে নেয়। তারা দখলে নেয়া জমিতে কলাগাছও লাগিয়ে দেয়। জমিতে থাকা বাঁশ কেটে নেয়। বাঁধা দিতে গেলে বয়োবৃদ্ধ আব্দুর রহমানকে লাঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে ফেলে রেখে যায়। মাঠের লোকজন আব্দুর রহমানকে উদ্ধার করে হারদী হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে থানায় হামলাকারীদের নামে মামলা হয়েছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।