চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ৬ অক্টোবর ২০১৬

আলমডাঙ্গা ভাংবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশে জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস মেয়েরা কোনো কাজে পিছিয়ে নেই, আপনারা বাল্যবিয়েকে না বলুন

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ৬, ২০১৬ ১০:৫৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

00

আলমডাঙ্গা অফিস: আলমডাঙ্গা ভাংবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে গতকাল সকাল ১০ টায় ভাংবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে ও ইউনিয়ন এলজিপি-২’র সহযোগীতায় অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ভাংবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ভাংবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি কাউছার আহমেদ বাবলুর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস। তিনি অভিভাবকদের বলেন, আপনাদের প্রতি আমার অনুরোধ স্কুলে পড়া অবস্থায় কোন মেয়ের বিয়ে দেবেন না। বর্তমান সরকার মেয়েদের লেখাপড়ার সকল সুযোগ সুবিধা প্রদান করছে। বাল্য বিবাহ সমাজে অভিশাপ। মেয়েরা বর্তমানে কোন কাজে পিছিয়ে নেই। সেনাবাহিনী, পুলিশ, পাইলট, জর্জ, ব্যরিষ্টার থেকে শুরু করে ডিসি, এসপি সবস্তরেই তাদের প্রাধাণ্য রয়েছে। আপনারা সঠিকভাবে মেয়েদেরকে পরিচর্চা করলে সুষ্ঠুভাবে লেখাপড়া করালে তারাও সমাজের দশ জনের একজন হতে পারবে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা শিক্ষা অফিসার মিজানুর রহমান, আলমডাঙ্গা থানা অফিসার ইনচার্জ আকরাম হোসেন, নারী -শিশু এ্যাডভোকেসি ফোরামের মেহেরপুর অঞ্চলের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, আলমডাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও হাটবোয়ালিয়া বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইয়াকুব আলী মাষ্টার, ভাংবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আশাবুল হক ঠান্ডু, হাটবোয়ালিয়া স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুস সাত্তার, সজীবুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম মাষ্টার, অত্র স্কুলের প্রধান শিক্ষ আব্দুল লতিফ, একরামুল হক, শিপলু প্রমূখ। অনুষ্ঠানে অতিথিদের ফুল দিয়ে বরণ করেন স্কুলের শিক্ষার্থী সীমা খাতুন, নিশি খাতুন ও মীম খাতুন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।