চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ২৪ আগস্ট ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আলমডাঙ্গায় সাইকেল না পেয়ে নানার উপর অভিমান করে আত্মহত্যা করে নাতি

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ২৪, ২০১৬ ১১:৩১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

আলমডাঙ্গা অফিস: আলমডাঙ্গা উপজেলার মাদারহুদা গ্রামে বাইসাইকেল কিনে না দেওয়ায় নানার উপর অভিমান করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে নাতি সাগর (১৫)। ঘটনাটি ঘটেছে গত ২১ তারিখ রাতে। জানাযায়, আলমডাঙ্গা উপজেলার মাদারহুদা গ্রামের দক্ষিণপাড়ায় জমির উদ্দিনের ছেলে সাগর জন্মের পর থেকেই আলমডাঙ্গা উপজেলার মাদারহুদা গ্রামের কৃষক হামিদ আলীর বাড়ীতেই থাকত সাগর। নানা নানি ও পাড়া প্রতিবেশীদের কাছে অতি আদরের পাত্র ছিল সাগর। বেশ কিছু দিন থেকে সাগর তার নানার কাছে একটি বাই সাইকেল আবদার করে আসছিল। বহুবার কিনে দিতে বললেও দরিদ্র নানা হামিদ আলী আজ না কাল করে বাই সাইকেল কিনে দিতেব্যার্ত হয়। অবাব অনটনের কারণে প্রিয় নাতির আবদার রাখা সম্ভব হয়নি নানা হামিদ আলীর। এতে সাগর অভিমান করে সকলের অজান্তে রাত ৮ টার দিকে তার নিজ ঘরের আড়াই বিদ্যুতের তার গলায় পেচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে । নানী ওই সময় ঘরের মধ্যে ঢুকে নাতি সাগরকে ঝুলন্ত অবস্থায দেখে চিৎকার করতে থাকে। সাথে সাথে তার আত্মচিৎকার শুনে পাড়া প্রতিবেশীরা দ্রুত ছুটে এসে সাগরকে উদ্ধার করে। আলমডাঙ্গায় ডাক্তারের কাছে নিয়ে আনার সময় সে পথের মধ্যে মারা যায়। তার মৃত্যুতে হামিদ আলীর বাড়ি কান্নার রোল পড়ে যায়। প্রতিবেশীরাও সাগরের মৃত্যুর খবর পেয়ে একনজর দেখতে ছুটে আসে হামিদ আলীর বাড়ি। প্রতিবেশীরা জানাই নিহত সাগরের বাবার বাড়ী মেহেরপুর জেলার সিংহাট গ্রামে। ছয় মাসের মাতৃগর্ভে রেখে তার বাবা অন্য এক মেয়ের সাথে বিয়ে করে নিরুদ্দেশ হয়। পরে তার মাকে অন্য জায়গায় বিয়ে দেয় নানা। গতকাল সকাল ১০ টার দিকে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ খবর পেয়ে নিহতের বাড়ীতে উপস্থিত হয়ে তার সুরত হাল রিপোর্ট করেন এবং গ্রামের মন্ডল মাতুব্বরদের অনুরোধে দাফন করার অনুমতি দিলে গতকাল বাদ জোহর তার দাফন সম্পন্ন হয়।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।