আলমডাঙ্গায় দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হুইপ ছেলুনের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া

356

আলমডাঙ্গা অফিস: আলমডাঙ্গা মহিলা কলেজ ও মডেল সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পৃথকভাবে মাননীয় হুইপ ছেলুন জোয়ার্দ্দার এমপির রোগমুক্তি কামনায় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সকাল ১০টায় আলমডাঙ্গা মহিলা কলেজের উদ্যোগে জাতীয় সংসদের হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি’র আশু রোগমুক্তি কামনা করে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন মহিলা কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও দাতা সদস্য সাবেক পৌর মেয়র আলহাজ¦ মীর মহি উদ্দিন। তিনি বলেন, চুয়াডাঙ্গা জেলার রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হিসাবে সেলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি একটি প্রতিষ্ঠান। উনি একজন বর্ষিয়ান রাজনীতিবীদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা। মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে তার অবদান চিরদিন মানুষ স্মরণ রাখবে। উনি বর্তমানে ভারতের চেন্নায় গঙ্গারাম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। আমরা তার আশু রোগমুক্তি কামনা করছি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা কলেজের পরিচালনা পরিষদের সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম খান, সাবেক সদস্য আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি খ. হামিদুল ইসলাম আজম, সাবেক সদস্য ও পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, সহকারি অধ্যাপক ফজলুর রহমান, শফিউল হক, বজলুল রশীদ, শফিকুর রহমান। সহকারি অধ্যাপক আব্দুর রহমানের উপস্থাপনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রভাষক বজলুর রশীদ, শরিফুল আলম, মোতাহার হোসেন, গোলাম সরোয়ার, প্রবীর কুমার পাল, প্রভাংশু কুমার ব্যানার্জি, কবিরুল হাসান, আব্দুল কুদ্দুস, নাছরিন নাহার, জামিল হাসান, শফিউল আলম প্রমুখ। অনুষ্ঠানে দোয়া পরিচালনা করেন আলমডাঙ্গা কাছারি বাজার জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মওলানা ওমর ফারুক।

অপরদিকে বিকাল সাড়ে ৪টায় আলমডাঙ্গা মডেল সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে জাতীয় সংসদের হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপির আশু রোগমুক্তি কামনা করে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আলমডাঙ্গা মডেল সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রবিউল ইসলাম খান। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আওরঙ্গজেব মোল্লা টিপু। তিনি বলেন ছেলুন ভাইয়ের বিকল্প ছেলুন ভাই-ই। চুয়াডাঙ্গা জেলার রাজনীতিতে তার অবদান অত্র অঞ্চলের মানুষ চিরদিন স্মরণ রাখবে। ২ বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গায় ব্যাপক উন্নয়ন সাধান করেছেন। আলমডাঙ্গা পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়কে সরকারি করণ করতে তার সরাসরি অবদান আছে। আলমডাঙ্গা ডিগ্রী কলেজকে সরকারি করণ করেছেন। এছাড়াও রাস্তা-ঘাট, স্কুল কলেজ, মাদরাসা সর্বক্ষেত্রে তার অবদান স্মরণ রাখার মতো। আজ তিনি ভারতের গঙ্গারাম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। ২/১ দিনের মধ্যেই তার শরীরে অস্ত্র পাচার করা হবে। আমরা তার সুস্থ্যতা কামনা করছি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিচালনা কমিটির সদস্য শেখ আব্দুল জব্বার, সহকারি অধ্যাপক রোকনুজ্জামান, প্রভাষক মিজানুর রহমান, প্রেসক্লাব সভাপতি  ও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি খ হামিদুল ইসলাম আজম। সহকারি প্রধান শিক্ষক ইলিয়াস আহমেদের উপস্থাপনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষক জয়নাল আবেদীন, মোল্লা আনোয়ারুজ্জামান, সিদ্দিক আলী, গৌতম কুমার পাল, আব্দুল হান্নান, আজিজুর রহমান, প্রতাপ অধিকারী, ইছাহক আলী, সরাফত হোসেন, আবু তালেক, সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ। দোয়া পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ের মৌলবী শিক্ষক ইছাহক আলী।