আলমডাঙ্গায় খেলার ছলে গলাই দড়ি, শিশুর মৃত্যু

80

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা জেলায় আলমডাঙ্গা উপজেলায় খেলার ছলে গলাই দড়ির ফাঁস লেগে হৃদয় সরকার (১০) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুটির মৃত্যু হয়। নিহত হৃদয় সরকার আলমডাঙ্গা উপজেলার আঁইলহাস ইউনিয়নের লক্ষীপুর গ্রামের মৃত রুপা সরকারের ছেলে।
জানা যায়, আলমডাঙ্গার আঁইলহাস ইউনিয়নের লক্ষীপুর গ্রামের একটি সাইকেল মিস্ত্রিীর দোকানে কাজ করে। শনিবার বিকেলে কাজ শেষে ওই দোকানের আরেক কর্মচারীসহ কয়েকজনের সঙ্গে গড়ি দেওয়া নিয়ে খেলা করছিল। এসময় কীভাবে গলাই দড়ি দেয় খেলার ছলে তা বন্ধুদের দেখাতে গিয়ে অসাবধানতায় তার গলাই ফাঁস লেগে যায়। এতে হৃদয় সরকার গুরুত্বর অসুস্থ হয়ে পড়ে। তখন দোকানের অন্য শিশুরা চিৎকার করতে থাকলে স্থানীয় ব্যক্তিরা উপস্থিত হয়ে দ্রুত হৃদয়কে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ১১টার দিকে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক পরীক্ষা নিরিক্ষা করে শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।
চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাহাবুবুর রহমান বলেন, গুরুত্বর অসুস্থ অবস্থায় শিশুটিকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়া হয়। তার নাক ও মুখ দিয়ে রক্তক্ষরণ হয়েছে। তাকে তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালের ওয়ার্ডে ভর্তি রাখা হয়েছিলো। কিন্তু তার অবস্থার কোনো উন্নতি হয়নি। রাত সাড়ে ১১টার দিকে শিশুটির মৃত্যু হয়।
এ বিষয়ে আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর কবির বলেন, ‘খেলা করার সময় গলাই ফাঁস লেগে হৃদয় নামের একটি শিশু গুরুত্বর আহত হয়। চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুটির মৃত্যু হয়েছে বলে শুনেছি। এবিষয়ে যদি অভিযোগ পাই তাহলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিহত হৃদয়ের লাশ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের লাশ ঘরে রাখা ছিলো।