চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ৪ আগস্ট ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আলমডাঙ্গার বাঁশবাড়িয়ায় যৌতুকের দাবিতে অন্তঃসত্ত্বা পুত্রবধূকে মুখে বিষ ঢেলে হত্যার অভিযোগ

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
আগস্ট ৪, ২০২২ ৭:৫৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

আলমডাঙ্গা অফিস:  আলমডাঙ্গার বাঁশবাড়িয়ায় অন্তঃসত্ত্বা পুত্রবধূকে যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন করে মুখে বিষ ঢেলে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। জানা যায়, আলমডাঙ্গা উপজেলার ভাঙবাড়িয়া ইউনিয়নের বাঁশবাড়িয়া গ্রামের মাঝের পাড়ায় আলমগীর হোসেনের ছেলে রাশিদুল হোসেনের সাথে গাংনী ইউনিয়নের সাহেবপুর গ্রামের মাঝের পাড়ার শাহিবুল ইসলামের কন্যা নাছিমা খাতুন ওরফে নছিমনের পারিবারিকভাবে বিবাহ হয়। তাদের সংসারে ৭ বছরের একটি সন্তান আছে এবং নাছিমা খাতুন ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

এ বিষয়ে নাছিমা খাতুনের বড় ভাই সাবলু রহমান বলেন, ‘আমার বোন জামাই রাশিদুল ইসলাম গত ৬ দিন আগে আমার বোনকে মারপিট করে। আমরা খবর পেয়ে তাদের বাড়িতে গিলে, আমার বোনজামাই মোটরসাইকেল কিনবে ২ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। পরে আমরা আমার বোনজামাইকে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা দিতে চাই, এবং আমারা ১৫ দিন সময় নিয়ে এসেছি। সময় নেওয়ার ৫ দিনের মাথায় গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে আমার বোনজামাই-এর বাড়ির পাশের এক প্রতিবেশী আমাদের কাছে মোবাইল করে বলে তোমার বোন বিষ খেয়েছে। তাৎক্ষণিক আমরা তাদের বাড়িতে যেয়ে জানতে পারি আমার বোনকে বোনজামাই রাশিদুল, তার মা ও বোন মিলে মারপিট করেছে। পরে মুখে বিষ ঢেলে দিয়েছে। আমার বাবা ও আমি হারদী হাসপাতালে গিয়ে দেখি আমার বোন নিঃশ্বাসে টান পাড়ছে। ডাক্তার আমার বোনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুষ্টিয়া হাসপাতালে রেফার্ড করে। সেখানে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎক জানান আমার বোন নাছিমা মারা গিয়েছে। পরে ময়নাতদন্ত শেষে তার মরদেহ বাড়িতে নিয়ে আসা হয়।’

এদিকে, তার পিতার বাড়ি সাহেবপুর গ্রামে গতকাল রাত ৯টার দিকে মরহুমার জানাযা নামাজ শেয়ে দাফনকার্য সম্পন্ন হয়েছে। এর আগে তারা আলমডাঙ্গা থানার ওসি সাইফুল ইসলামকে জানান মরহুমার লাশ দাফন করা যাবে কিনা। ওসি লাশ দাফনের অনুমতি দিলে দাফনকার্য সম্পাদন করা হয়েছে। এ বিষয়ে মরহুমার পিতা সাহিবুল ইসলাম মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তারা আজ বৃহস্পতিবার আলমডাঙ্গা থানায় মামলা করবে বলে জানান।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।