চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ১৭ এপ্রিল ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আলমডাঙ্গার খাসকররায় পানিবন্দী অর্ধশত পরিবার!

আলমডাঙ্গা অফিস:
এপ্রিল ১৭, ২০২২ ২:৩৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গার খাসকররা গ্রামের কারিগর পাড়ায় পানিবন্দী হয়ে পড়েছে অর্ধশত পরিবার। পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় আলমডাঙ্গার খাসকররা বাজার সংলগ্ন কারিগরপাড়ার অর্ধশত পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। পানি বের হওয়ার পাইপের উপর মাটি ভরাট করে বন্ধ করে দোকান ঘর নির্মাণ করায় পানি বের হওয়ার রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়েছে। পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর স্বারকলিপি প্রদানের জন্য ইউপি চেয়ারম্যানের নিকট জমা দিয়েছেন।

জানাগেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার খাসকররা বাজার সংলগ্ন কারিগরপাড়ায় প্রায় অর্ধশত পরিবার বসবাস করে। প্রতি বছরই গঙ্গ-কপোতাক্ষ সেচ প্রকল্পের পানিতে ওই এলাকা প্লাবিত হয়ে যায়। ইতোপূর্বে খাসকররা পূবপাড়া যাওয়ার ব্রিজের পাশে পানি নিষ্কাশনের পাইপ লাইন ছিল। যা গত কয়েক বছর আগে খাসকররার মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে মন্টু আলী ওরফে মন্টু কসাই পাইপ লাইন বন্ধ করে ওয়াপদার ওই জমিতে দোকান ঘর নির্মাণ করার কারণে ওই এলাকার পানি বের হওয়ার রাস্তা বন্ধ হয়ে গেছে। এদিকে গত কয়েকদিন আগে জিকে ক্যানেলে পানি ছাড়ায় ওই পানিতে কারিকরপাড়ার অর্ধশত পরিবার পানি বন্দি হয়ে পড়েছে।

এ পাড়ার ভুক্তভোগী তাসলিমা খাতুন জানান, গত কয়েক বছর ধরে এই সময় হলেই আমরা পানি বন্দি হয়ে পড়ি। পানি বের হওয়ার পাইপ লাইন বন্ধ করে দোকান ঘর নির্মান করার পর থেকেই এই পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। আগামী বর্ষা মৌসুমের আগেই আমরা পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করার জন্য প্রশাসনের নিকট দাবী জানায় ।

ভুক্তভোগী আনিসুজ্জামান জানানা, এইপাড়ায় পানি জমে থাকার কারণে জীবন যাত্রা বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। আমরা বাড়িতে ফসল নিয়ে এসে ঘরে তুলতে পারছি না। পানির কারণে আমরা চরম দূর্ভোগে পড়েছি। এই বর্ষা মৌসুমের আগেই পানি নিষ্কাশনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানাচ্ছি। এদিকে পানি নিষ্কাশনের জন্য কারিগরপাড়ার লোকজন গণস্বাক্ষর করে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর প্রদানের জন্য গতকাল শনিবার খাসকররা ইউপি চেয়ারম্যান তাফসীর আহমেদ লাল মল্লিকের নিকট জমা দিয়েছেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, আনিসুজ্জামান, মোনায়েম হোসেন, হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।