আলমডাঙ্গার উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মোবাইল নম্বর ক্লোন করে ভাইস চেয়ারম্যানের ফোনে রিং দিয়ে টাকা দাবি

448

gtrseg

আলমডাঙ্গা অফিস: আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহি অফিসারের মোবাইলফোনের সিম নম্বর ক্লোন করে ভাইস চেয়ারম্যানের মোবাইলফোনে রিং দিয়ে টাকা দাবি করার চাঞ্চল্যকর প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে আলমডাঙ্গা থানায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার জিডি করেছেন, যার নং- ৫০০, তাং- ১২ ডিসেম্বর ২০১৬ ইং। দায়েরকৃত জিডি মারফত জানা গেছে, গত ১১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় অজ্ঞাত ব্যক্তি আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আজাদ জাহানের ব্যক্তিগত মোবাইলফোন সিম নম্বর ০১৭১৬২১৩৭৬১ হুবহু ব্যবহার করে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কাজী খালেদুর রহমান অরুণের ০১৭১১৩২৮৭০৫ মোবাইলফোনে রিং দেয়। সে সময় তিনি নিজেকে ইউএনও আজাদ জাহান দাবি করে ভাইস চেয়ারম্যানের নিকট ২০ হাজার টাকা দাবি করেন। সন্ধ্যা ৬টা ১৪ মিনিট থেকে সন্ধ্যা ৬টা ২৭ মিনিটের মধ্যে ১৩ মিনিটের ভেতর মোট ৪ বার রিং দিয়ে ইউএনও পরিচয়দানকারি জনৈক ব্যক্তি টাকা দাবি করেন। এ জনৈক প্রতারক ০১৮৬৯৪১৫৮৪১ নম্বরে টাকা বিকাশ করে দিতে বলেন। উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী খালেদুর রহমান অরুণ বলেন, ইউএনও’র নম্বর থেকে রিং পেয়ে আমিতো অবাক। একাধিকবার রিং দিয়ে ইমার্জেন্সি জানিয়ে টাকা চাচ্ছেন। অথচ কন্ঠস্বর ইউএনও’র মত না। একথা অজ্ঞাত প্রতারককে বললে ঠান্ডা লেগেছে বলে অজ্ঞাত ব্যক্তি মন্তব্য করেছিল। ভাইস চেয়ারম্যান তখন কীভাবে টাকা পাঠাবো জিজ্ঞেস করলে প্রতারক তাকে ওই একটেল নম্বর দিয়ে বিকাশ করতে বলেন। এদিকে, প্রতারকের কথা বিশ্বাসযোগ্য মনে না হওয়ায় ভাইস চেয়ারম্যান ইউএনও’র পৃথক আরেকটি মোবাইলফোনের সিম নম্বরে রিং দিয়ে জিজ্ঞেস করেন তিনি টাকা চেয়েছেন কি-না। উপজেলা নির্বাহি অফিসার আজাদ জাহান বলেন, বিষয়টি আমার জন্য যেমন বির্বতকর তেমনি ক্ষতিকর। সে কারণে বিষয়টি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের থানা অফিসার ইনচার্জ আকরাম হোসেনকে অনুরোধ জানিয়েছেন।