চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ৩০ অক্টোবর ২০২০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আমি আপনাদের জিপু ছিলাম, আছি এবং থাকবো

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ৩০, ২০২০ ১১:৩৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

আনুষ্ঠানিকভাবে গণসংযোগে নামলেন পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু
নিজস্ব প্রতিবেদক:
আসন্ন পৌর নির্বাচন উপলক্ষে পুনরায় মেয়র পদপ্রার্থী জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক ও পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনী গণসংযোগ শুরু করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে তিনি নিজের মায়ের পায়ে সালাম এবং পিতার কবর জিয়ারত করে দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে ১নং ওয়ার্ডের কেদারগঞ্জ ও নতুন বাজার এলাকায় এ গণসংযোগ করেন। গণসংযোগকালে তিনি বর্তমান মেয়াদে পৌর মেয়র হিসেবে থেকে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার যেসকল উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন এবং যা চলমান আছে সে সকলের একটি তথ্যচিত্রমূলক লিফলেটও বিতরণ করেন।
এসময় তিনি বলেন, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার ইতিহাসে আমার পরিষদের ইতিহাস স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। আমি বর্তমান পরিষদে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভায় যে সকল উন্নয়মূলক কাজ করেছি, তা আগে কেউ কখনো করেনি। আমার পরিষদের মাধ্যমে সবোর্চ্চ কাজ হয়েছে। ইতিমধ্যে একশ এক কোটি টাকার কাজ হয়েছে এবং কিছু কাজ চলমান আছে। প্রতিদিনই পৌর এলাকার কোনো না কোনো রাস্তা বা ড্রেন নির্মাণকাজের উদ্বোধন করা হচ্ছে। আরো ৪৭ কোটি টাকার কাজ অতিদ্রুতই আসছে। এই স্বল্প সময়ে আমি চুয়াডাঙ্গা পৌরসভাকে ডিজিটাল পৌরসভায় রুপান্তরসহ ব্যাপক উন্নয়ন করেছি। মানুষ এখন পৌরসভায় গেলে উপকৃত হয়। নাগরিক সেবার মান বৃদ্ধি পেয়েছে অনেক বেশি। আগের থেকে এখন কাজের মান এবং নাগরিক সেবার মান অনেক ভালো।
পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু আরো বলেন, এই উন্নয়ন এবং নাগরিক সেবার মানকে বৃদ্ধি করতে হলে আপনারা আপনাদের ভোট ভেবে চিন্তে দিবেন। যোগ্য প্রতিনিধি নির্বাচন করবেন। গত নির্বাচনে আপনারা আমার পাশে ছিলেন, এবারেও থাকবেন আমি সেই আশা করি। আমি মেয়র হওয়ার পরও কখনো পৌর মেয়র ভাবিনা নিজেকে। আমি পৌর সেবক হিসেবে নিজেকে মনে করি। আপনাদের সাথে কথা বলতে গিয়ে কখনো মেয়র হিসেবে কথা বলিনি, বলেছি সেই আগের জিপু হয়েই। আমি আপনাদের জিপু ছিলাম, আছি এবং থাকবো।
আনুষ্ঠানিকভাবে গণসংযোগের শুরু করার সময় চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপুর সাথে ছিলেন, চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাস, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আফসার উদ্দীন, ওমর মণ্ডল, নূর ইসলম মণ্ডল, মালেক মাস্টার, শুকুর আলী, আপিল উদ্দীন, গণি, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও জেলা দোকান মালিক সমিতির প্রচার সম্পাদক মাফিজুর রহমান মাফি, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আব্দুর রাজ্জাক, আবুল হোসেন মিলন, ইমরান আহমেদ বিপ্লব, আব্দুল হালিম ভুলন, হাফিজুর রহমান হাফিজ, ওয়াশীম, মাসুম, ইমরান, জেলা শ্রমিক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুক্তার আলী, ১নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মামুন খন্দকার, ২নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক মিলন শেখ, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জানিফ, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য গাজী ইমদাদুল হক সজল, সদর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল রানা, ছাত্রলীগ নেতা রাকিবুল ইসলাম নিপ্পন, ইসমাইল খল্লিলুল্লাহ, শাওন, সুমন, রাকিব, সানজীদ, সাইফুল, সালেকিন, মোস্তাকিমসহ আওয়ামী লীগ, যুব লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।