চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ১২ ডিসেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আমলের পরিমাপ করা হবে

সমীকরণ প্রতিবেদন
ডিসেম্বর ১২, ২০১৬ ১:১৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ধর্ম ডেস্ক: ‘মিজান’ আরবি শব্দ। এর অর্থ পরিমাপ করার যন্ত্র বা দাঁড়িপাল্লা। হাশরের ময়দানে মানুষের আমল পরিমাপ করার জন্য আল্লাহ তায়ালা যে পাল্লা প্রতিষ্ঠা করবেন তাকে মিজান বলা হয়। মিজানের পাল্লায় মানুষের পাপ-পুণ্য আমলনামা ওজন করা হবে। মানুষের মৃত্যুর পর কবর, হাশর, মিজান ও পুলসিরাত এই ঘাঁটিগুলো অতিক্রম করে যেতে হবে। এরপর ভালোমন্দ আমলের হিসাবে চিরস্থায়ী ঠিকানা জান্নাত বা জাহান্নাম নির্ধারিত হবে। এর মধ্যে মিজান একটি অন্যতম ঘাঁটি। মহান আল্লাহর সৃষ্টিরাজির হিসাব নেয়ার জন্য হাশরের ময়দানে মিজান বা দাঁড়িপাল্লা স্থাপন করা হবে। হিসাব নেয়ার জন্য মানুষকে হাশরের ময়দানে সারিবদ্ধভাবে দাঁড় করানো হবে। হিসাব দেয়ার জন্য একজন একজন করে সামনে অগ্রসর হবে। মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন হিসাব নেবেন এবং আমল সম্পর্কে জিজ্ঞেস করবেন। হিসাব শেষ হওয়ার পর স্থাপিত মিজানে আমল ওজন করা হবে। দুনিয়ার পাল্লার মতো এর দুটি পাল্লাই থাকবে। পবিত্র কোরানে আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘আমি কেয়ামতের দিন ন্যায়বিচারের মানদ- স্থাপন করব। সুতরাং কারও প্রতি জুলুম করা হবে না। যদি কোনো আমল সরিষার দানা পরিমাণও হয় আমি তাও উপস্থিত করব এবং হিসাব গ্রহণের জন্য আমিই যথেষ্ট’ (সূরা আম্বিয়া : ৪৭)। মহান আল্লাহ আরো বলেন, ‘অতএব যার পাল্লা ভারি হবে, সে সুখী জীবন যাপন করবে, আর যার পাল্লা হালকা হবে, তার ঠিকানা হবে হাবিয়া, আপনি জানেন তা কি? তা হলো প্রজ্বলিত আগুন’ (সূরা কারিয়া : ৬-১১)। আমরা যা করি, যা বলি আল্লাহতায়ালা এর সবই সংরক্ষণ করেন। আমাদের চলাফেরা, আচার-আচরণ, ভালো-মন্দ, পাপ-পুণ্য সবকিছু লিখে রাখা হয়। একে বলা হয় আমলনামা। আল্লাহর হুকুমে একদল ফেরেশতা সবকিছু লিখে রাখেন। এই ফেরেশতাদের বলা হয় কেরামান কাতেবিন। আমলের ওজনে যাদের নেক কাজ বেশি হবে তারা হবে জান্নাতের অধিকারী। আর যাদের পাপ বেশি হবে তারা হবে জাহান্নামের অধিবাসী। আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘আর সেদিন কেয়ামতের ময়দানে ইমান ও আমলের যথার্থই ওজন হবে। যাদের পাল্লা ভারি হবে তারাই সফলকাম হবে। আর যাদের পাল্লা হালকা হবে, তারাই নিজেদের ক্ষতি করেছে। কেননা তারা আমার আয়াতগুলো অস্বীকার করত’ (সূরা আরাফ : ৮-৯)।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।