চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ১ মে ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল ঈদ

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
মে ১, ২০২২ ৮:৩৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

আজ পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেলে আগামীকাল পবিত্র ঈদুল ফিতর। ঈদ মোবারক। এক মাস সিয়াম সাধনার মধ্য দিয়ে বিদায় নিতে যাচ্ছে পবিত্র কোরআন নাজিলের মাস মাহে রমজান। ‘মহান আল্লাহর অশেষ রহমতে এবার করোনা বিহীন এলো খুশির ঈদ।’ বৈশ্বিক করোনা মহামারির দু’বছর পর এবার স্বাস্থ্যবিধির নিষেধাজ্ঞা ছাড়াই পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে আনন্দঘন পরিবেশে। ঈদ জামাতগুলোতে মুসল্লিদের নামবে ঢল। রাজধানীর জাতীয় ঈদগাহসহ সারাদেশের ঈদ জামাতের সময়সূচি আগেই ঘোষণা করা হয়েছে। আজ সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বায়তুল মোকাররম সভাকক্ষে শাওয়াল মাস ও ঈদুল ফিতর নির্ধারণের জন্য জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশের আকাশে কোথাও পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেলে তা নিম্নোক্ত টেলিফোন নাম্বারে অথবা সংশ্লিষ্ট জেলার জেলা প্রশাসক অথবা উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানানোর জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। টেলিফোন নাম্বার : ০২-২২৩৩৮১৭২৫, ০২-৪১০৫০৯১২, ০২-৪১০৫০৯১৬ ও ০২-৪১০৫০৯১৭।

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদে পর্যায়ক্রমে ৫টি ঈদের নামাযের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ সারাদেশের ঈদগাহ ও মসজিদগুলোতে পেশ ইমাম ও খতিবরা ঈদুল ফিতরের জামাত পূর্ব বয়ানে রমজানের পর বাকি এগারো মাস কিভাবে ইবাদত বন্দেগীতে কাটাতে হবে তার গুরুত্ব তুলে ধরবেন। ঈদগাহ ও মসজিদে মসজিদে মহান আল্লাহর অশেষ নৈকট্য হাসিল, গুনা মাফ জান্নাত লাভ দেশ জাতির উন্নতি সমৃদ্ধি এবং মুসলিম উম্মাহর কল্যাণ কামনা করে বিশেষ দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে বিগত দু’টি রোজার ঈদে আনন্দের সবকিছুতেই ভাটা পড়েছিল। মুসলমানদের সবচেয়ে বড় উৎসবে ঈদুল ফিতর আনন্দ-খুশির পরিবর্তে শঙ্কা-অনিশ্চয়তার মাঝে উদযাপিত হয়েছিল। ঈদের নামাজ শেষে করা যায়নি চিরাচরিত মুয়ানাকা, করমর্দন। ঈদগুলোতে ছিল না অনাবিল আনন্দের আবহ আর খুশির জোয়ার। অদৃশ্য এক ভাইরাসে পুরো বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও থমকে গিয়েছিল স্বাভাবিক জীবনযাপন।

সরকারি বিধি নিষেধ থাকায় বিগত ঈদে নাড়ির টানে গ্রামে গিয়ে মা-বাবা, ভাই-বোনদের সঙ্গে একত্র হওয়াতে ছেদ পড়েছিল। যদিও বিধিনিষেধকে উপেক্ষা করে নজরবিহীন ভোগান্তিকে সঙ্গী করে গ্রামের বাড়িতে গেছেন অনেক মানুষ। তবে অনেকেই ঐ সময়ে কর্মস্থলেই ঈদ উদযাপন করেছিলেন। এবার এ দৃশ্য আর থাকেনি। গতকাল বাদ এশা ও আজ বাদ ফজর সারাদেশের মসজিদগুলো থেকে মাইকে থেমে থেমে ঈদ মোবারক ঈদ মোবারক জানিয়েছে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজের সময়সূচি ঘোষিত হয়েছে।
এদিকে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জি এম কাদের এবং বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বাণী দিয়েছেন। বাণীতে তারা দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানান। আর জাতীয় দৈনিক পত্রিকাগুলো ঈদ সংখ্যা ছাড়াও বিশেষ ক্রোড়পত্র বের করেছে। সরকারি ও বেসরকারি টেলিভিশনে প্রচারিত হচ্ছে বিশেষ অনুষ্ঠান। ঈদ মানেই পরম আনন্দ। ঈদ মানেই নতুন জামাকাপড়। ঈদ মানে আত্মীয়-স্বজন আর বন্ধুদের মিলনমেলা, হৈ-হুল্লোড়, ঘুরে বেড়ানো, খাওয়া-দাওয়া আর আড্ডা। এছাড়া সৌহার্দ্য, সম্প্রীতি, ভালোবাসার বন্ধনে সবাইকে নতুন করে আবদ্ধ করাও ঈদের অন্যতম অর্থ। ঈদ মানে ভোগান্তিকে সঙ্গী করে নাড়ির টানে গ্রামের বাড়িতে মা-বাবা, ভাই-বোনদের সঙ্গে একত্রিত হওয়া।

ঈদের নামাজ একটি বড় উৎসব। এদিন ছেলে, বুড়ো, পাড়া-প্রতিবেশী সবাই দল বেঁধে ঈদের নামাজ পড়তে ঈদগাহে যান। নামাজ শেষে একে অপরের সঙ্গে কুশল বিনিময়, করমর্দন, মুয়ানাকা করেন। সকল ভেদাভেদ ভুলে হাতে হাতে রাখার দৃঢ় প্রত্যয় নেন। ঈদ সামনে রেখে লাইনে দাঁড়িয়ে ট্রেনের টিকিট কাটা, দূরপাল্লার বাসে টিকিট কাটার জন্য এবার ছিল চরম হুড়োহুড়ি। লঞ্চ, যাত্রীবাহী বাস ও ট্রেনের ছাদভর্তি মানুষ চিরাচরিত সেই দৃশ্য এবার চোখে পড়েছে। ঈদযাত্রায় মহাসড়কেও ভয়াবহ যানজটের ভোগান্তির শিকার হতে হয়েছে। করোনা মহামারি না থাকায় পর্যটকদের স্বাগত জানাতে দেশের পর্যটন কেন্দ্রগুলো ও রিসোর্টগুলোকে বর্ণিল সাজে সজ্জিত করা হয়েছে। অনেকেই ঈদের ছুটিতে সাগর-পাহাড় বা কাছাকাছি কোনো পর্যটন কেন্দ্রে নিজেদের মতো সময় কাটানোর উদ্যোগ নিয়েছে। ছেলে-মেয়ে নিয়ে অনেকেই বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে যাবার সুযোগ পাচ্ছেন।

পূর্ণমাস সিয়াম সাধনার পর ঈদ মুসলমান জাতির প্রতি মহান আল্লাহ তায়ালার এক বিরাট নিয়ামত। এই উৎসবেই ধনী-গরিব, শত্রু-মিত্র সবাই ভালোবাসা-মমতার বাহুডোরে অনাবিল আনন্দ-উৎসবে মিলেমিশে যায়। কবি নজরুলের ভাষায়, ‘আজ ভুলে যা তোর দোস্ত-দুশমণ, হাত মেলাও হাতে,/তোর প্রেম দিয়ে কর বিশ্ব নিখিল ইসলামে মুরিদ।/ও মন রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ।’ দৈনিক সময়ের সমীকরণ-এর পক্ষ থেকে আমাদের সকল পাঠক, সাংবাদিক, বিজ্ঞাপনদাতা, কর্মী ও শুভানুধ্যায়ীদের জানাই পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা; ঈদ মোবারক।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।