আজ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

15
?????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????

চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরসহ দেশের ৫০টি নবনির্মিত মডেল মসজিদের
মেহেরাব্বিন সানভী:
আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন নবনির্মিত চুয়াডাঙ্গা জেলা সদর মডেল মসজিদ। মুজিববর্ষ উপলক্ষে সকাল সাড়ে ১০টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের মডেল মসজিদসহ দেশের ৫০টি মডেল মসজিদের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন তিনি।
গণভবন থেকে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি যুক্ত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় নির্মাণাধীন ৫৬০ মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের মধ্যে প্রথম পর্যায়ে ৫০টির উদ্বোধন করা হবে। এর মধ্যে চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের পানি উন্নয়ন বোর্ডের মধ্যকার মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রটি অন্যতম।
চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের মডেল মসজিদটির কাজ শেষ হয়েছে। এ মসজিদে একসঙ্গে ১২ শ মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন। মডেল মসজিদ হবে গবেষণা, ইসলামি সংস্কৃতি ও জ্ঞান চর্চা কেন্দ্র। আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত সুবিশাল এই মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কমপ্লেক্সে নারী ও পুরুষদের পৃথক ওজু ও নামাজ আদায়ের সুবিধা, লাইব্রেরি, গবেষণা কেন্দ্র, ইসলামিক বই বিক্রয় কেন্দ্র, পবিত্র কোরআন হেফজ বিভাগ, শিশু শিক্ষা, অতিথিশালা, বিদেশি পর্যটকদের আবাসন, মৃতদেহ গোসলের ব্যবস্থা, হজ্জযাত্রীদের নিবন্ধন ও প্রশিক্ষণ, ইমামদের প্রশিক্ষণ, অটিজম কেন্দ্র, গণশিক্ষা কেন্দ্র, ইসলামী সংস্কৃতি কেন্দ্র থাকবে। এছাড়া ইমাম-মুয়াজ্জিনের আবাসনসহ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য অফিসের ব্যবস্থা এবং গাড়ি পার্কিং সুবিধা রাখা হয়েছে।
মডেল মসজিদটিতে দ্বীনি দাওয়া কার্যক্রম ও ইসলামী সংস্কৃতি চর্চার পাশাপাশি মাদক, সন্ত্রাস, যৌতুক, নারীর প্রতি সহিংসতাসহ বিভিন্ন সামাজিক ব্যধি রোধে সচেতনতা কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।
চুয়াডাঙ্গা ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক এ বি এম রবিউল ইসলাম বলেন, মুসলিম বিশ্বের এই প্রথম কোনো দেশের সরকার প্রধান একসঙ্গে ৫৬০টি মসজিদ নির্মাণ করছে। এর আগে কোনো মুসলিম শাসক বা সরকার প্রধান এক সঙ্গে এতগুলো মসজিদ নির্মাণ করেননি। মডেল মসজিদগুলো শুধু নামাজ পড়ার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে না। এখানে ইসলামী সংস্কৃতি চর্চার পাশাপাশি জ্ঞান অর্জন ও গবেষণা সুযোগ থাকবে, প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা থাকবে। তিনি আরও বলেন, মানুষ যখন ইসলামের সঠিক জ্ঞান পাবে তখন কেউ আর মাদক, সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদের সঙ্গে জড়িত হবে না। যৌতুক-নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধ হবে, মানুষ অন্যায় থেকে দূরে থাকবে। এ ক্ষেত্রে মডেল মসজিদগুলোর সঠিক ব্যবহার গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।