চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ৬ নভেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আগামী ২০১৭ জানুয়ারীতে দর্শনা কেরুজ শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন নির্বাচন নির্বাচনকে সামনে রেখে শ্রমিকদের পক্ষ বদল!

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ৬, ২০১৬ ৮:৫৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

SAM_3622

দর্শনা অফিস: আগামী জানুয়ারী-২০১৭ দর্শনা কেরুজ শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচনকে সামনে রেখে শ্রমিক সংগঠনভুক্ত শ্রমিকেরা দল বদল শুরু করেছেন। কেরুজ শ্রমিক সংগঠনগুলোর মধ্যে রয়েছে তৈয়ব আলী, মাসুদুর রহমান, সূর্যসেনা, মনিরুল ইসলাম প্রিন্স, মোস্তাফিজুর রহমান ও সবুজ সংগঠন। এসব শ্রমিক সংগঠনের কেরু চিনিকল এলাকায় আলাদা আলাদা অফিস রয়েছে। শ্রমিকরা এখন থেকে তাদের পছন্দের এক সংগঠন থেকে আর এক সংগঠনে যোগদান করছেন। কেউ কেউ আগে থেকেই টাকার বিনিময়ে, আবার কেউ কেউ তাদের ভাললাগা থেকে সংগঠন বদল করছেন। সাবেক শ্রমিক মৃত শামীম আহম্মদের ছেলে কেরুজ শ্রমিক মাজেদুল ইসলাম ডাবলু মোস্তাফিজুর রহমানের দলে যোগ দেবেন বলে স্ট্যাম্প করে আগে থেকেই ২৯ হাজার টাকা নিয়ে ছিল। পরবর্তীতে সে সূর্যসেনা সংগঠনে চলে আসে। এরপর মোস্তাফিজুর রহমান তার দেওয়া টাকা ফেরত চায়। এরপর মাজেদুল ইসলাম ডাবলু মোস্তাফিজুর রহমানকে ৫হাজার টাকা ফেরত দেয় এবং বাকী ২৪ হাজার টাকা ফেরত দিতে সময় ক্ষেপন করতে থাকে। এতে মোস্তাফিজুর রহমান ক্ষিপ্ত হয়ে গত ২৮ অক্টোবর ডাবলুর কাছ থেকে একটি মোটরসাইকেল কেড়ে নেয়। ঐদিন ডাবলু তার খালাতো ভাই স্টারের সাথে করে হিরোকের মোটর সাইকেলযোগে দর্শনা হল্ট ষ্টেশনের মিলনের চায়ের দোকানের সামনে পৌছালে মোস্তাফিজুর রহমানের লোকজন মোটরসাইকেলটি কেড়ে নিয়ে বাড়ি চলে যায় এবং বলেন আমার টাকা ফেরত দিয়ে মোটরসাইকেলটি নিয়ে যাবেন। এ ঘটনার পর ডাবলু ও তার খালাতো ভাই স্টার মোটরসাইকেল ফেরত পেতে দর্শনা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে একটি অভিযোগ করেন। এরপর এএসআই সাইদুর রহমান মোস্তাফিজুর রহমানকে মোটরসইকেলটি তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে আসতে বলেন। তদন্ত কেন্দ্রে বসে উভয় পক্ষের মধ্যে একটি সালিশ বৈঠক করে আগামী ২৫নভেম্বর ডাবলু বাকী ২৪হাজার টাকা মোস্তাফিজুর রহমানকে ফেরত দেওয়ার শর্তে মোটরসাইকেলটি ফেরত নিয়ে যায়। এ বিষয়ে মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, মাজেদুল ইসলাম ডাবলু আমার কাছ থেকে স্ট্যাম্প করে ২৯হাজার টাকা ধার করে নিয়ে ছিল। আমি তার কাছে ধার করে নেওয়া টাকা পাই, অন্যকোন বিষয় নয়। অপরদিকে মাজেদুল ইসলাম ডাবলু টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন আমি মোস্তাফিজুর রহমানের সংগঠন করবো বলে ২৯ হাজার টাকা নিয়ে ছিলাম। আমি ইতোমধ্যে ৫হাজার টাকা ফেরত দিয়েছি। বাকী টাকাও আগামী ২৫ নভেম্বর ফেরত দিয়ে দেবে। এমনিভাবে গোপনে অনেক ঘটনায় ঘটছে, অনেকে তা জানেন না। এক সংগঠন থেকে আর এক সংগঠনে কখনো অর্থের বিনিময়ে, আবার কখনো তাদের পছন্দমত শ্রমিক সংগঠনে যোগদান করছেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।