চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ১৮ নভেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আইওআরএর চেয়ারম্যান হলো বাংলাদেশ

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
নভেম্বর ১৮, ২০২১ ৯:০৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

অর্থনৈতিক সহযোগিতাবিষয়ক ২৩ জাতির সংগঠন ইন্ডিয়ান ওশেন রিম অ্যাসোসিয়েশনের (আইওআরএ) চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে বাংলাদেশ। আগামী দুই বছরের জন্য বাংলাদেশ এই দায়িত্ব পালন করবে। এ ছাড়া শ্রীলঙ্কা ভাইস চেয়ারম্যান এবং ইন্দোনেশিয়া সেক্রেটারি নির্বাচিত হয়েছে। গতকাল বুধবার হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে আইওআরএর মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আব্দুল মোমেন এ কথা জানান। বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই), ইন্দোনেশিয়াসহ ১১টি দেশের ১২ জন মন্ত্রী এবং ৮২ জন প্রতিনিধি সশরীরে অংশ নিয়েছেন। এ ছাড়া অস্ট্রেলিয়া, ভারত, চীনসহ ২০টি দেশের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়েছেন। গত সোমবার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সভার মধ্য দিয়ে আইওআরএর বৈঠকের কার্যক্রম শুরু হয়।

করোনা টিকা প্রাপ্তির ওপর বৈঠকে গুরুত্বারোপ করা হয়েছে উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এই টিকা বিশ্বের কম দেশে উৎপাদন হয়। বাংলাদেশ সব সময় বলেছে করোনা টিকা সবার জন্য সহজলভ্য করতে হবে। এ বিষয়টি সম্মেলনে জোর দিয়ে বলা হয়েছে। পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেন, আগামী বছর জুলাইয়ে আইওআরএর পরবর্তী মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক (কাউন্সিল অব মিনিস্টার্স) অনুষ্ঠিত হবে। এতে ইন্দো-প্যাসিফিক কৌশলে বাংলাদেশের অবস্থান পরিষ্কার করা হবে। এবারের বৈঠকে ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোতে করোনা মহামারীর প্রভাব এবং অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার ইস্যু গুরুত্ব পেয়েছে। এ ছাড়া বাণিজ্য ও বিনিয়োগ, সমুদ্র অর্থনীতি, মৎস্য ব্যবস্থাপনা, দুর্যোগ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা, পর্যটন ও সাংস্কৃতিক বিনিময়, নারীর ক্ষমতায়ন, শিক্ষা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। ঢাকায় ২১তম কাউন্সিল অব মিনিস্টার্স বৈঠকের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো ইউএইর কাছ থেকে আইওআরএর চেয়ারম্যানশিপ গ্রহণ করল। ২০১৩ সালে ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ১৪টি দেশ নিয়ে আইওআরএ গঠিত হয়। অস্ট্রেলিয়া এই সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও চেয়ার। ২০১৫ সালে আইওআরএ জাতিসঙ্ঘ সাধারণ পরিষদ ও আফ্রিকান ইউনিয়নের পর্যবেক্ষক মর্যাদা পায়। মৌরিশাসে সংস্থার সচিবালয় অবস্থিত। বর্তমানে এর সদস্য সংখ্যা ২৩।

ঢাকা বৈঠকে ব্রিটিশ পররাষ্ট্র, কমনওয়েলথ ও উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রী লর্ড তারিক আহমেদ, যুক্তরাষ্ট্রের উপ-সহকারী মন্ত্রী কেলি কেইদারলিং, শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিএল পেইরিস, ইউএইর সহকারী মন্ত্রী আবদুল নাসের আল সালি, মালদ্বীপের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আহমেদ খালিল, তাঞ্জানিয়ার মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মাসহিমবা মাসহুরি নকী, দক্ষিণ আফ্রিকার আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও সহযোগিতা বিষয়ক মন্ত্রী ড. পেন্ডুর, সোমালিয়ার পররাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতাবিষয়ক মন্ত্রী আবদিরাজাক মোহামুদ, কমোরোসের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দইহির দৌল কামাল, মাদাগাস্কারের পররাষ্ট্র সচিব রাতসিমান্দ তাহিরিমিকাদাজা, কেনিয়ার চিফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সেক্রেটারি আবাবু নামওয়াম্বা সশরীরে অংশ নিয়েছেন। তা ছাড়া অস্ট্রেলিয়া, ইরান ও মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী, তুরস্কের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী, চীনের বিশেষ প্রতিনিধি এবং ভারতের মন্ত্রী পর্যায়ের প্রতিনিধি ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়েছেন। আইওআরএ বৈঠকে যোগ দিতে ঢাকায় আসা মন্ত্রীরা এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।